বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

দীঘিনালা ইউপি চেয়ারম্যান প্রজ্ঞান জ্যোতি চাকমা প্রথম আলোকে বলেন, আজ পুলীন হেডম্যানপাড়া এলাকার বাসিন্দা দশম শ্রেণির ওই ছাত্রীর সঙ্গে মধ্যবানছড়া এলাকার এক তরুণের (১৮) উভয় পক্ষের সম্মতিতে বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। খবর পেয়ে সকাল ১০টার দিকে দুই পক্ষের অভিভাবককে পুকুরঘাট এলাকায় ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্সে ডেকে আনা হয়। এরপর ওই বাল্যবিবাহ বন্ধ করা হয় এবং ছেলেমেয়ে প্রাপ্তবয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে না দেওয়ার বিষয়ে দুই পক্ষের অভিভাবকের কাছ থেকে মুচলেকা নেওয়া হয়।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন