default-image

বৈরী আবহাওয়ার কারণে মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ও রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া নৌপথে রোববার সন্ধ্যা পৌনে ছয়টা থেকে সাড়ে সাতটা পর্যন্ত ফেরি চলাচল বন্ধ ছিল। পৌনে দুই ঘণ্টা বন্ধ থাকায় পাটুরিয়া ঘাট এলাকায় যাত্রী ও যানবাহনের চাপ বেড়েছে।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন সংস্থার (বিআইডব্লিউটিসি) আরিচা কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌপথে ১৬টি ফেরি রয়েছে। বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে ঝড় শুরু হলে সন্ধ্যা পৌনে ছয়টা থেকে নৌরুটে ফেরি পারাপার সাময়িকভাবে বন্ধ রাখা হয়। এ সময় যাত্রী ও যানবাহনের চাপ পড়ে পাটুরিয়া ঘাট এলাকায়। তবে আবহাওয়া অনুকূলে এলে সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে ফেরি চলাচল শুরু হয়।

সূত্র আরও জানায়, বৈরী আবহাওয়ার কারণে গুরুত্বপূর্ণ এই নৌরুটে পারাপার বন্ধ থাকায় পাটুরিয়া প্রান্তে বিভিন্ন যানবাহনের চাপ বেড়ে যায়। রাত সাড়ে আটটায় এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত পাটুরিয়া প্রান্তে অর্ধশতাধিক যাত্রীবাহী বাস, দেড় শতাধিক পণ্যবাহী গাড়ি এবং অর্ধশতাধিক ব্যক্তিগত বিভিন্ন গাড়ি ঘাটে আটকা পড়েছে। কাল সোমবার লকডাউন উপলক্ষে এ ঘাটে আজ সন্ধ্যার পর থেকে যানবাহনের চাপ কিছুটা বেড়েছে। এরই মধ্যে ফেরি বন্ধ থাকায় এই চাপ আরও বেড়ে যায়।

বিআইডব্লিউটিসির আরিচা কার্যালয়ের সহকারী ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) মহিউদ্দিন রাসেল বলেন, ঝড়ের কারণে দুর্ঘটনা এড়াতে পৌনে দুই ঘণ্টা ফেরি চলাচল বন্ধ থাকে। যাত্রীদের দুর্ভোগ বিবেচনা করে যাত্রীবাহী বাস ও ব্যক্তিগত গাড়িগুলো আগে পারাপার করা হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন