সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকদের দ্বিতীয় শ্রেণির কর্মকর্তার পদমর্যাদায় উন্নীত করার দাবি দ্রুত বাস্তবায়ন হবে বলে অনুষ্ঠানে উল্লেখ করেন প্রতিমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘এক মাসের মধ্যেই শিক্ষকদের গ্রেডের বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে। প্রাথমিকের শিক্ষকেরা যেন পদোন্নতি পান সে বিষয়ে আমরা পদক্ষেপ নিচ্ছি, যাঁরা ভালো শিক্ষক তাঁরা যেন পদোন্নতি পেয়ে ডিডি (উপপরিচালক) পর্যন্ত হতে পারেন, সে বিষয়েও আমরা কাজ করছি।’

তিনি গণকা প্রাথমিক বিদ্যালয়ে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ফলক উন্মোচন করে জেলার ৬৫টি নবনির্মিত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভবনের উদ্বোধন ও ১৫টি ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

জেলা প্রশাসক এ কে এম গালিভ খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন সাংসদ সামিল উদ্দিন আহম্মেদ, সংরক্ষিত আসনের মহিলা সাংসদ ফেরদৌসি ইসলাম, পুলিশ সুপার এ এইচ এম আবদুর রকিব। জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জিয়াউর রহমান, সহসভাপতি রহুল আমিন, সাধারণ সম্পাদক আবদুল ওদুদ প্রমুখ। স্বাগত বক্তব্য দেন স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগের (এলজিইডি) নির্বাহী প্রকৌশলী অহেদুজ্জামান।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন