বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, অস্থায়ী নির্বাচনী কার্যালয়টি তিন দিক থেকে কাপড় দিয়ে ঘেরা ছিল। আগুনে কাপড়ের বেশ কিছু অংশ পুড়ে গেছে।

আওয়ামী লীগের ওই প্রার্থীর নাম গৌড়দাস রায় চৌধুরী। তিনি সীমাবাড়ি ইউপির বর্তমান চেয়ারম্যান। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের সমর্থিত ভোটারদের ভীতি সৃষ্টি করার জন্য রাতে সন্ত্রাসীরা তাঁদের নির্বাচনী কার্যালয়ে আগুন দিয়েছে। তিনি এই ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেবেন।

শেরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহীদুল ইসলাম বলেন, নির্বাচনী কার্যালয়ে আগুন দেওয়ার ঘটনার সঙ্গে কারা জড়িত, তা নিয়ে পুলিশের অনুসন্ধান চলছে। জড়িত ব্যক্তিদের গ্রেপ্তার করে দ্রুত আইনের আওতায় আনা হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন