বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এ ব্যাপারে যশোরের সিভিল সার্জন শেখ আবু শাহীন বলেন, ‘পাসপোর্টের মাধ্যমে দেশে ফেরা যাত্রীদের ভারতে নিযুক্ত বাংলাদেশ দূতাবাসের অনাপত্তিপত্র আর লাগবে না। তবে যাত্রীদের অবশ্যই ৭২ ঘণ্টার করোনা নেগেটিভ সনদ দেখানো বাধ্যতামূলক রয়েছে। যেসব যাত্রীর করোনা পজিটিভ বা করোনার উপসর্গ থাকবে, তাঁদের অবশ্যই আইসোলেশনে থাকতে হবে। সপ্তাহে তিন দিনের পরিবর্তে এখন থেকে সাত দিনই যাত্রীরা দেশে ফিরতে পারবেন।’

বেনাপোল ইমিগ্রেশন ও স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের কাছ থেকে জানা গেছে, চিকিৎসার জন্য ভারতে অবস্থানরত বাংলাদেশিদের মধ্যে যাঁদের ভিসার মেয়াদ ১৫ দিনের কম আছে, তাঁরা বেনাপোল, আখাউড়া ও বুড়িমারী স্থলবন্দর দিয়ে দেশে ফিরতে পারবেন। সে জন্য তাঁদের দিল্লি, কলকাতা বা আগরতলায় বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে অনুমতি নিতে হতো। এখন থেকে এটি আর নিতে হচ্ছে না।

এদিকে আগের সপ্তাহে তিন দিন পাসপোর্টধারী যাত্রীদের ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে চলাচলের সুযোগ ছিল। গতকাল থেকে সপ্তাহে সাত দিনই যাত্রীর চলাচল করতে পারছেন।

এ বিষয়ে বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আহসান হাবিব সাংবাদিকদের বলেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে একটি চিঠি এসেছে। ওই চিঠিতে বলা হয়েছে, এখন থেকে সপ্তাহে সাত দিন ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে যাত্রীরা চলাচল করতে পারবেন। নির্দেশনা অনুযায়ী গতকাল থেকে যাত্রীরা দেশে ঢুকছেন। কাউকে দূতাবাসের এনওসি দেখাতে হয়নি।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন