default-image

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার দেলোয়ার বাহিনীর প্রধান দেলোয়ার হোসেনকে একটি হত্যা মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। একই আদালত গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের মামলায় দেলোয়ার বাহিনীর সদস্য ইস্রাফিল হোসেনের চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।

আজ বুধবার দুপুরে নোয়াখালীর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত ভবনের ২ নম্বর আমলি আদালতে রিমান্ড আবেদনের ওপর শুনানি হয়। শুনানি শেষে এ আদালতের বিচারক সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মাশফিকুর হক ওই আদেশ দেন।

বিজ্ঞাপন
বেগমগঞ্জের গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের একটি ভিডিও চিত্র ৪ অক্টোবর ফেসবুকে ভাইরাল হয়। এ ঘটনায় রাতেই ওই গৃহবধূ দুটি মামলা করেন।৬অক্টোবর তিনি ধর্ষণের অভিযোগে আরেকটি মামলা করেন।

আদালতসংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, আজ সকালে ওই দুই আসামিকে জেলা কারাগার থেকে আদালতে নিয়ে আসা হয়। গত ফেব্রুয়ারিতে বেগমগঞ্জের হাজীপুর এলাকার মো. হাসান হত্যা মামলায় দেলোয়ারকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পাঁচ দিনের রিমান্ডের আবেদন জানান তদন্তকারী কর্মকর্তা উপপরিদর্শক (এসআই) মোস্তাক আহমদ। আদালত তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

একই সময় একলাসপুরে গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের মামলার আসামি ইস্রাফিলকে একই আদালতে হাজির করা হয়। এ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) পরিদর্শক মামুনুর রশীদ পাটোয়ারী তাঁর সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। শুনানি শেষে আদালত তাঁর চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

বেগমগঞ্জের একলাসপুরে গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের একটি ভিডিও চিত্র ৪ অক্টোবর ফেসবুকে ভাইরাল হয়। এ ঘটনায় রাতেই ওই গৃহবধূ নারী নির্যাতন ও দমন আইন এবং পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে দুটি মামলা করেন। ৬ অক্টোবর ওই গৃহবধূ ধর্ষণের অভিযোগে আরেকটি মামলা করেন।

তিনটি মামলায় এ পর্যন্ত ১২ জন আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাঁদের বেশির ভাগই দেলোয়ার বাহিনীর সদস্য। এর মধ্যে নারী নির্যাতন আইনের মামলায় এ পর্যন্ত আটজন দোষ স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন। তবে দেলোয়ারকে ধর্ষণের মামলায় পাঁচ দিনের রিমান্ডে নেওয়া হলেও তিনি দোষ স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দেননি।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0