বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

স্থানীয় প্রশাসন সূত্র জানিয়েছে, জামালপুরের ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মো.আরিফুল ইসলাম পুলিশকে সঙ্গে নিয়ে প্রথমে শহরের দয়াময়ী এলাকায় রঞ্জন সিংহের গুদামে অভিযান চালান। সেখানে ৩ হাজার ৮৭৬ লিটার ভোজ্যতেল পাওয়া যায়। এ সময় এসব বোতলজাত তেল গায়ে লেখা মূল্যে বাজারে বিক্রি করা হয়।

পরে শহরের মুকুন্দবাড়ি এলাকায় কামাল ট্রেডার্সের গুদামে অভিযান চালিয়ে ৪৪৪ লিটার ভোজ্যতেল পাওয়া যায়। এসব বোতলজাত তেলের গায়ে লেখা মূল্য উঠিয়ে ফেলা হয়েছিল। এ কারণে কামাল ট্রেডার্সের মালিক কামাল হোসেনকে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা এবং এসব তেল আগের দামে বিক্রি করা হয়।

জামালপুরের ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মো. আরিফুল ইসলাম বলেন, বিভিন্ন এলাকায় তেলের কৃত্রিম সংকট তৈরি করা হয়েছে। কেউ কেউ তেল মজুত করে বাড়তি দামে সেগুলো বিক্রি করছেন। এ কারণে এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন