বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ঘাটে যানবাহনের চাপ কমাতে ফেরিঘাট থেকে প্রায় ১৪ কিলোমিটার পেছনে গোয়ালন্দ মোড়ের আহ্লাদীপুরে পণ্যবাহী গাড়ি আটকে রাখা হয়েছে। সেখানেও প্রায় তিন কিলোমিটার লম্বা লাইনে পণ্যবাহী গাড়ি অপেক্ষায় রয়েছে।

মাগুরা থেকে আসা পাটবোঝাই ট্রাকের চালক মো. আবদুল্লাহ জানান, গত বৃহস্পতিবার রাত আটটার দিকে তিনি গোয়ালন্দ মোড়ে এসেছেন। এরপর সারা রাত তিনি লাইনে দাঁড়িয়ে ছিলেন। গতকাল দুপুরে তাঁদের লাইন ঘাটের দিকে যেতে শুরু করলেও পদ্মার মোড় এলাকায় গিয়ে আবার যানজটে পড়েন। পদ্মার মোড় থেকে ফেরিঘাটের পাঁচ কিলোমিটার পথ আসতে তাঁর প্রায় ১৯ ঘণ্টা সময় লেগেছে। আজ সকাল নয়টা পর্যন্ত তিনি ফেরিতে ওঠার অপেক্ষায় ছিলেন।

বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে পণ্যবাহী গাড়ির লাইন আরও লম্বা হচ্ছে। এসব পরিবহনের চালকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, তাঁদের মধ্যে বেশির ভাগই প্রায় দুই দিন ধরে ফেরিতে ওঠার জন্য অপেক্ষা করছেন। একটানা এভাবে সড়কের ওপর বসে থাকায় চরম দুর্ভোগে পড়েছেন এসব পরিবহনের শ্রমিকেরা। সড়কের আশপাশে খাওয়াদাওয়া আর শৌচাগারের কোনো ব্যবস্থা না থাকায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন অনেকে।

default-image

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) আরিচা কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথে বর্তমানে ৮টি বড় ফেরি, ৬টি ছোট, মাঝারি আকারের ২টিসহ মোট ১৬টি ফেরি চলাচল করছে। এর আগে ২০টি ফেরি চালু থাকলেও গত বুধবার পাটুরিয়ার ৫ নম্বর ঘাটে একটি ফেরি যানবাহন নিয়ে ডুবে গেছে। এ ছাড়া যান্ত্রিক ত্রুটি থাকায় দুটি ফেরি ডকইয়ার্ডে আছে। অবশিষ্ট আরেকটি রো রো ফেরি যান্ত্রিক ত্রুটিতে বসে আছে।

এদিকে দৌলতদিয়া ও পাটুরিয়ায় ৫টি করে মোট ১০টি ঘাট আছে। তবে দুই পাশেই একটি করে ঘাট বন্ধ আছে। ফেরিস্বল্পতার পাশাপাশি ঘাটস্বল্পতার কারণে দুপাশেই যানজট সৃষ্টি হচ্ছে। গতকাল রাতে দৌলতদিয়া ফেরিঘাট থেকে মহাসড়কের গোয়ালন্দ বাজার পর্যন্ত ছয় কিলোমিটার যানজট সৃষ্টি হয়। পরে প্রশাসন বাধ্য হয়ে গোয়ালন্দের পদ্মার মোড় থেকে ছোট, ব্যক্তিগত গাড়ি ঘুরিয়ে দিয়ে উজানচর-চরদৌলতদিয়া বাজার ঘুরে ঘাটে যাওয়ার ব্যবস্থা করে।

এদিকে গতকাল মধ্যরাত থেকে পদ্মা নদীর অববাহিকায় প্রচণ্ড বাতাস রয়েছে। ঘাটসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা জানান, বাতাসের কারণে ছোটখাটো নৌযানসহ ফেরি চলাচলেও বেগ পোহাতে হচ্ছে। নদীর স্রোতের পাশাপাশি বাতাসের কারণে নদী পারাপারে স্বাভাবিকের তুলনায় অনেক বেশি সময় লাগছে বলে জানা গেছে।

বিআইডব্লিউটিসি দৌলতদিয়া কার্যালয়ের ব্যবস্থাপক জামাল হোসেন বলেন, বর্তমানে ২০টির ফেরির মধ্যে ১৬টি চলছে। এদিকে পাটুরিয়ার ৫ নম্বর ঘাট কবে চালু হবে, সেটা বলা মুশকিল। তবে দৌলতদিয়ার ৩ নম্বর ঘাটটি দু-এক দিনের মধ্যে চালু হবে। বাংলাবাজার-শিমুলিয়া নৌপথে ফেরি বন্ধ থাকায় এ রুটে আগে থেকেই বাড়তি চাপ ছিল।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন