default-image

সুনামগঞ্জের ধরমপাশা উপজেলার বংশীকুণ্ডা দক্ষিণ ইউনিয়নের ধোপাঘাট গ্রাম থেকে নবী হোসেন (১৬) নামের এক কিশোরের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নবী হোসেন গ্রামের আতাবুর রহমানের ছেলে। বুধবার সকালে নবী হোসেনের লাশ উদ্ধার করা হয়।

এলাকাবাসী ও ওই কিশোরের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, আড়াই বছর বয়সে নবী হোসেনের বাবা-মায়ের বিচ্ছেদ হয়। বড় হওয়ার পর থেকে সে বাবার সঙ্গে নিজেদের জমিতে কৃষিকাজ করত।

গতকাল মঙ্গলবার রাত আটটার দিকে প্রতিবেশীদের সঙ্গে পার্শ্ববর্তী নেত্রকোনা জেলার কলমাকান্দা উপজেলার একটি গ্রামে অনুষ্ঠিত ওয়াজ মাহফিলে যায়। সেখান থেকে ওই দিন রাত ১১টার দিকে বাড়ি ফিরে গোয়ালঘরে ঢোকে। পরে প্রতিবেশী ও নবী হোসেনের সমবয়সী এক কিশোর তাকে ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পায়।

নবী হোসেনের দাদা মুক্তুল হোসেন (৬০) বলেন, তাঁর নাতি খুবই শান্ত প্রকৃতির ছিল। কেন সে আত্মহত্যা করল, তা কেউ বুঝতে পারছে না।

পরিবার ও প্রতিবেশীদের বরাত দিয়ে মধ্যনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নির্মল দেব বলেন, বাবা-মায়ের বিচ্ছেদের পর থেকেই ওই কিশোর হতাশায় ভুগছিল। তার শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্ন নেই। ধারণা করা হচ্ছে, হতাশা থেকেই সে আত্মহত্যা করেছে। মৃত্যুর ঘটনা নিয়ে পরিবারের সদস্যদের কোনো অভিযোগ না থাকায় লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন