default-image

সুনামগঞ্জের ধরমপাশা উপজেলার বালিয়া গ্রামে নদী কলুমা জলমহালের মধ্যবর্তী স্থান থেকে বুদ্‌বুদ করে গ্যাস বের হচ্ছে। গতকাল শনিবার সকাল থেকে এই অবস্থা। আজ রোববার বেলা ১১টায় শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত গ্যাস বের হচ্ছিল। খবর পেয়ে বিভিন্ন স্থান থেকে লোকজন এসে এখানে ভিড় জমাচ্ছেন।

এলাকাবাসী ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বালিয়া গ্রামের পেছনে নদী কলুমা জলমহালটির অবস্থান। জলমহালটির বেশির ভাগ স্থান এখন শুকিয়ে গেছে। গতকাল সকালে জলমহালটির মধ্যবর্তী অংশের একটি স্থানে মাটির নিচ থেকে বুদ্‌বুদ করে গ্যাস বের হতে শুরু করে। গতকাল সকাল নয়টার দিকে স্থানীয় কয়েকটি শিশু বিষয়টি দেখতে পায়। এ সময় বুদ্‌বুদ করা স্থানটিতে তারা একটি ছোট পাইপ বসিয়ে পাইপের ওপরের মুখের অংশে আগুন ধরিয়ে দিলে দাউ দাউ করে আগুন বের হতে থাকে। খবর পেয়ে আশপাশের লোকজন সেখানে ভিড় জমান।

বিজ্ঞাপন

পাইকুরাটি ইউনিয়নের বালিয়া গ্রামের বাসিন্দা রঞ্জন সরকার বলেন, ‘নদী কলুমা জলমহালটি এখন শুকিয়ে গেছে। নদীর মধ্যবর্তী স্থানে মাটির ভেতর থেকে বুদ্‌বুদ করে গ্যাস বের হচ্ছে দেখে কয়েকটি শিশু আমাকে খবরটি জানায়। আমি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যানকে বিষয়টি জানিয়েছি।’

পাইকুরাটি ইউপির চেয়ারম্যান মো. ফেরদৌসুর রহমান আজ সকালে প্রথম আলোকে বলেন, এখনো গ্যাস বের হচ্ছে। ঘটনাটি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে (ইউএনও) জানানো হয়েছে।

ধরমপাশার ইউএনও মো. মুনতাসির হাসান প্রথম আলোকে বলেন, বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

তবে পাইকুরাটি ইউপির চেয়ারম্যান মো. ফেরদৌসুর রহমান বলেন, আজ সকাল পর্যন্ত প্রশাসনের কেউ ঘটনাস্থলে যাননি।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন