default-image

সুনামগঞ্জের ধরমপাশা উপজেলায় বরইয়া নদীতে যাত্রীবাহী ট্রলার ডুবে গেছে। আজ শনিবার সন্ধ্যা সোয়া সাতটার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এতে ট্রলারের ছাদে থাকা ৬০ বস্তা সিমেন্টসহ ব্যবসায়ীদের মালামাল তলিয়ে গেছে। তবে কোনো প্রাণহানি ঘটেছে কি না, তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।

ধরমপাশা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন মুঠোফোনে প্রথম আলোকে বলেন, ‘ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। স্থানীয় লোকজন উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রেখেছেন। কারও প্রাণহানি বা কোনো যাত্রীর নিখোঁজ থাকার খবর পাইনি।’

ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। কারও প্রাণহানি বা কোনো যাত্রীর নিখোঁজ থাকার খবর পাইনি।
মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন, ওসি, ধরমপাশা থানা
বিজ্ঞাপন

ধরমপাশা থানার পুলিশ ও এলাকার কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, বরইয়া নদীর জয়শ্রী বাজার ঘাট থেকে প্রতিদিন পাশের জামালগঞ্জ উপজেলার সাচনাবাজার ঘাট পর্যন্ত একটি ট্রলার যাত্রী পরিবহন করে। পাশাপাশি ট্রলারটিতে বিভিন্ন দোকানের মালামালও বহন করা হয়। আজ সাচনাবাজার থেকে ছেড়ে আসা ট্রলারটি সন্ধ্যা সোয়া সাতটার দিকে জয়শ্রী গ্রামের সামনে পৌঁছায়। তখন ট্রলারটি উল্টে ডুবে যায়। নৌযানটিতে ১৫-২০ জন যাত্রী, ৬০ বস্তা সিমেন্টসহ মনিহারি দোকানের মালামাল ছিল। ট্রলারটি উল্টে গেলে অনেকে সাঁতরে তীরে উঠে পড়েন। রাত পৌনে আটটার দিকে ট্রলারটি উদ্ধার করেন এলাকাবাসী।

উদ্ধারকাজে নিয়োজিত ব্যক্তিদের একজন বাঘাউছা গ্রামের আবুল বাশার।

বাশার বলেন, স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ বিভিন্ন শ্রেণি–পেশার লোকজনের সহায়তায় ট্রলারটি উদ্ধার করা হয়েছে। অতিরিক্ত মালামাল বোঝাই করার কারণে এটি ডুবে যায় বলে কয়েকজন যাত্রী জানিয়েছেন।

মন্তব্য পড়ুন 0