বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গত মঙ্গলবার দিবাগত রাতে কেশবপুর গ্রামের বাসিন্দা নুরুল ইসলামের বাড়িতে ডাকাতি হয়। ডাকাতেরা বাড়ির সব মালামাল নিয়ে যায়। নুরুল ইসলামের অভিযোগ, এই ডাকাতির সঙ্গে ইসমাইল গাজী জড়িত।

কেশবপুর গ্রামের আরেক বাসিন্দা ও কৃষক রিপন হাওলাদার (৪২) বলেন, ইসমাইল গাজী একজন দুর্ধর্ষ ও ভয়ংকর ডাকাত। বাচ্চারা না ঘুমালে ইসমাইল ডাকাত আসবে—এই কথা বলে ভয় দেখিয়ে ঘুম পাড়ানো হয়।

বাউফল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) নাসির উদ্দিন মৃধা বলেন, ইসমাইল বরিশাল অন্তর্বিভাগ ডাকাত দলের সরদার। তাঁর বিরুদ্ধে বরিশাল বিভাগের বিভিন্ন থানায় একাধিক ডাকাতির মামলা আছে। তিনটি মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা নিয়ে পলাতক ছিলেন ইসমাইল।

নাসির উদ্দিন আরও বলেন, সূত্রের মাধ্যমে ইসমাইলের বাড়িতে অবস্থানের খবর পেয়ে পুলিশের একটি দল অভিযান চালায়। তাঁর বিরুদ্ধে নতুন করে অস্ত্র আইনে আরেকটি মামলা হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন