default-image

ধানের দাম বেশি থাকাসহ নানা কারণে ধান-চাল সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন সম্ভব হয়নি বলে জানিয়েছেন খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব মোছাম্মৎ নাজমানারা খানুম। আজ শনিবার তিনি ভোলা জেলার খাদ্য বিভাগের বিভিন্ন উন্নয়নকাজ পরিদর্শনকালে এ কথা জানান।

কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের কাছে ভোলার খাদ্য বিভাগের কার্যক্রম নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেন খাদ্যসচিব। তিনি বলেন, এ বছর ধানের দাম বেশি থাকাসহ বিভিন্ন কারণে ধান-চাল সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন সম্ভব হয়নি। সরকারের বাকি যেসব কার্যক্রম রয়েছে, যেমন ওএমএস, ১০ টাকা কেজি চাল বিক্রিসহ বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা চালু রয়েছে। ভবিষ্যতে এসব সুযোগ-সুবিধা চালু থাকার পাশাপাশি আরও প্রকল্প চালু হবে। খাদ্যগুদামগুলোকে আরও আধুনিক করা হবে।

বিজ্ঞাপন

উন্নয়নকাজ পরিদর্শনকালে খাদ্যসচিব স্থানীয় কর্মকর্তাদের বিভিন্ন দিকনির্দেশনা দেন। জেলার সরকারি খাদ্যশস্য জাহাজ থেকে ওঠানামার জন্য ভোলার বিসিক শিল্পনগরীসংলগ্ন খালের ঘাটে একটি উন্নত জেটি স্থাপনের প্রস্তাব পাঠানোর জন্য বলেন। এ ছাড়া সচিব ভোলার সরকারি ওএমএসের ডিলারের (চাল ও আটা বিতরণ) কার্যক্রম পরিদর্শন করেন। এ সময় ডিলারদেরও বিভিন্ন দিকনির্দেশনা দেন।

default-image

এ সময় খাদ্যসচিবের সঙ্গে ছিলেন তাঁর একান্ত সচিব মো. মাসুম বিল্লাহ, বরিশাল আঞ্চলিক খাদ্যনিয়ন্ত্রক মো. ফারুক হোসেন, ভোলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সুজিত কুমার হালদার, জেলা খাদ্যনিয়ন্ত্রক মো. ইকবাল বাহার চৌধুরী প্রমুখ।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন