default-image

বগুড়ার ধুনট উপজেলায় ছাত্রলীগের দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি বিক্ষোভ সমাবেশকে কেন্দ্র করে ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। এর জের ধরে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত শহরের মুজিব চত্বর ও তার আশপাশের ৪০০ গজ এলাকায় এই আদেশ বলবৎ থাকবে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, আজ বেলা ১১টার দিকে ধুনট শহরের মুজিব চত্বর এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ ডাকে উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আবু সালেহ। একই সময় একই স্থানে পৌর ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য রাসেল খন্দকারও পাল্টা বিক্ষোভ সমাবেশের ডাক দেয়। ছাত্রলীগের দুই পক্ষের বিক্ষোভ সমাবেশকে কেন্দ্র করে ধুনট শহর এলাকায় উত্তেজনা দেখা দেয়। গতকাল বুধবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে মুজিব চত্বর এলাকায় ও তার আশপাশে বিকট শব্দে পরপর ৬টি ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এ কারণে তাৎক্ষণিকভাবে রাত সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) আদেশে শহর এলাকায় মাইকিং করে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়।

বিজ্ঞাপন

ইউএনওর ফেসবুক পেজেও এ–সংক্রান্ত একটি গণবিজ্ঞপ্তি প্রচার করা হয়েছে। বিজ্ঞপ্তি অনুয়ায়ী, আজ মুজিব চত্বর ও তার আশপাশের এলাকায় সব ধরনের সভা, সমাবেশ, মিটিং, মিছিল ও গণজমায়েত নিষিদ্ধ করা হয়। এই আইন অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ধুনট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কৃপাসিন্ধু বালা বলেন, মুজিব চত্বর এলাকায় ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনার বিষয়ে তদন্ত চলছে। তদন্ত করে অভিযুক্ত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ ছাড়া মুজিব চত্বর ও আশপাশের এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

ধুনটের ইউএনও সঞ্জয় কুমার মহন্ত বলেন, একই স্থানে দুই পক্ষের সমাবেশকে কেন্দ্র করে ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি অবনতির আশঙ্কায় জরুরিভাবে ঘটনাস্থলে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন