default-image

নওগাঁয় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ মামলায় এক ব্যক্তিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড, ৫০ হাজার টাকা জরিমানা ও তা অনাদায়ে ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। একই মামলার আরেক আসামিকে ১৫ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড, ২০ হাজার টাকা জরিমানা ও তা অনাদায়ে ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। নওগাঁর অতিরিক্ত দায়রা জজ আদালত-১–এর বিচারক মেহেদী হাসান তালুকদার আজ রোববার দুপুরে এ রায় দেন।

দণ্ড পাওয়া দুই আসামির মধ্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল উপজেলার নাচোল গ্রামের বাসিন্দা জুয়েল রানাকে (৩৯) যাবজ্জীবন ও একই গ্রামের মিলন আলীকে (২৯) ১৫ বছর কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

মামলার নথি সূত্রে জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ২০১৫ সালের ৯ ফেব্রুয়ারি নওগাঁর নিয়ামতপুর উপজেলার নিয়ামতপুর-গাবতলী সড়কের ভাবিচা এলাকায় অভিযান চালিয়ে জুয়েল রানা ও মিলন আলী নামের দুই মোটরসাইকেল আরোহীর কাছ থেকে ১০০ গ্রাম হেরোইন ও ১৫০টি ইয়াবা বড়ি উদ্ধার করে পুলিশ। ওই দুই ব্যক্তির বিরুদ্ধে নিয়ামতপুর থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা হয়। ওই মামলায় আজ দুপুরে নওগাঁর অতিরিক্ত দায়রা জজ আদালত-১–এর বিচারক মেহেদী হাসান তালুকদার রায় ঘোষণা করেন।

বিজ্ঞাপন

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে এ মামলাটি পরিচালনা করেন অতিরিক্ত সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) আজিজুল হক ও আসামিদের পক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন আইনজীবী শাহরিয়ার হোসেন।

সরকারি কৌঁসুলি আজিজুল হক বলেন, আসামিরা যে বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে মাদকদ্রব্য নিয়ে যাচ্ছিলেন, রাষ্ট্রপক্ষ তা সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণ করতে সক্ষম হওয়ায় আদালত এই রায় দিয়েছেন।

পূর্ণাঙ্গ রায়ের কপি পাওয়ার পর দণ্ড পাওয়া ব্যক্তিদের সঙ্গে আলোচনা করে এই রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিল করার কথা জানান আসামিপক্ষের আইনজীবী শাহরিয়ার হোসেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন