নওগাঁয় মারা যাওয়া বৃদ্ধের কোভিড শনাক্ত

বিজ্ঞাপন
default-image

নওগাঁর নিয়ামতপুরে উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়ার ছয় দিন পর একজনের নমুনা পরীক্ষায় কোভিড–১৯ ‘পজিটিভ’ এসেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে নওগাঁ স্বাস্থ্য বিভাগের হাতে আসা ফলাফলে এই তথ্য নিশ্চিত হওয়া গেছে।

মৃত ওই ব্যক্তির নাম আবদুস সামাদ (৬২)। তিনি নিয়ামতপুর উপজেলার হাজিনগর ইউনিয়নের ঘুঘুডাঙ্গা গ্রামের বাসিন্দা। গত ২৭ জুন জ্বর, সর্দি ও কাশি নিয়ে নিজ বাড়িতে মারা যান তিনি।

স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা যায়, আবদুস সামাদ মারা যাওয়ার পর তাঁর নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য ঢাকার ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ল্যাবরেটরি অ্যান্ড মেডিসিন রিসার্চ সেন্টার ল্যাবে পাঠানো হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার রাত নয়টার দিকে নওগাঁর সিভিল সার্জন কার্যালয়ে আসা প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, তিনি করোনা পজিটিভ ছিলেন।

নিয়ামতপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা তোফাজ্জল হোসেন জানান, কোভিডের উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া ওই ব্যক্তির বাড়ি আগে থেকেই লকডাউন (অবরুদ্ধ) ছিল। নিহতের পরিবারের সদস্যদের কোয়ারেন্টিনে (সঙ্গনিরোধ) থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। গতকাল রাতে আসা নমুনা পরীক্ষার প্রতিবেদনে মৃত আবদুস সালামের পরিবারের আরও দুজনের কোভিডের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে।

জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের করোনা সেলের মুখপাত্র ও ডেপুটি সিভিল সার্জন মঞ্জুর-এ মুর্শেদ বলেন, গতকাল রাতে ৭২০টি নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে নতুন করে ৮৮ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে নিয়ামতপুর উপজেলায় আবদুস সামাদ নামের এক ব্যক্তি গত ২৭ জুন কোভিডের উপসর্গ নিয়ে মারা যান। এ নিয়ে নওগাঁয় করোনায় সংক্রমিত হয়ে সাতজনের মৃত্যু হলো। এখন পর্যন্ত জেলায় ৫৪০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন