বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

প্রশাসনের বেঁধে সময়সীমা অনুযায়ী, এই মৌসুমে ২৫ মে গুটি জাতের আম, ৩০ মে থেকে গোপালভোগ, ৫ জুন ক্ষীরশাপাতি/হিমসাগর, ৮ জুন নাক ফজলি, ১২ জুন ল্যাংড়া ও হাঁড়িভাঙা, ২২ জুন ফজলি, ২৫ জুন আম্রপালি এবং ১০ জুলাই থেকে আশ্বিনা, বারি ফোর ও গৌড়মতি সংগ্রহ করা যাবে।

সভায় নওগাঁ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক শামসুল ওয়াদুদ বলেন, জেলা প্রশাসনের সম্মেলনকক্ষে এক সভায় আম সংগ্রহের সময়সীমা নির্ধারণ করা হয়েছে। তারিখ অনুযায়ী আম সংগ্রহ করতে জেলাজুড়ে ব্যাপক প্রচারণা চালানো হবে। মূলত ভোক্তাদের পরিপক্ব ও ক্ষতিকারক কেমিক্যাল উপাদানমুক্ত আম খাওয়াতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

জেলা প্রশাসক খালিদ মেহেদী হাসান বলেন, নির্ধারিত সময়ের আগে কোনোভাবেই অপরিপক্ব আম সংগ্রহ কিংবা বাজারে তোলা যাবে না। আম পাকানো ও সংরক্ষণ বা বাজারজাতে কোনো কেমিক্যাল মেশানো যাবে না। আমে ভেজাল ঠেকাতে পরিবহনের আগে এই অঞ্চলের সবচেয়ে বড় আমের বাজার সাপাহার উপজেলা সদর বাজার, পোরশার নোচনাহারসহ বিভিন্ন বাজারে বিশেষ নজরদারি রাখবে প্রশাসন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন