জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৭৯ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৫১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৪৫ শতাংশ। এ নিয়ে জেলায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৫ হাজার ৯২। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৬৭ জন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৪ হাজার ৫১। আজ শনিবার দুপুর পর্যন্ত নওগাঁ জেনারেল হাসপাতাল ও জেলার ১০টি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা ৫৬। জেনারেল হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করোনা আক্রান্ত রোগী ভর্তি হয়েছেন তিনজন এবং ফ্লু ওয়ার্ডে উপসর্গ নিয়ে ভর্তি হয়েছেন পাঁচজন।

নওগাঁ জেনারেল হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডের ইনচার্জ শাপলা খাতুন বলেন, অনেকে আছেন, যাঁরা জ্বর, সর্দি-কাশির সমস্যা নিয়ে বাড়িতে থাকছেন। কিন্তু সঠিক সময়ে চিকিৎসা করাচ্ছেন না। তাঁরা যখন গুরুতর হয়ে পড়ছেন, তখন হাসপাতালে আসছেন। তখন আর কিছুই করার থাকছে না।

জেলার ডেপুটি সিভিল সার্জন মঞ্জুর-এ মোর্শেদ বলেন, করোনার প্রথম ঢেউয়ে এক বছরে যত করোনা রোগী শনাক্ত ও মৃত্যু হয়েছে, তার চেয়ে বেশি রোগী শনাক্ত ও মৃত্যু হয়েছে গত দুই মাসে। সংক্রমণের হারও এই দুই মাসে অনেক বেশি। উপসর্গ থাকা সত্ত্বেও নমুনা পরীক্ষা না করা, যথাসময়ে চিকিৎসা শুরু না করায় সংক্রমণ ও মৃত্যুর হার বাড়াচ্ছে।