default-image

খুলনা বিভাগে আজ সোমবার সকাল পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় ১০৭ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এই সময়ের মধ্যে এ ভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে কেউ মারা যাননি। আর সুস্থ হয়েছেন ১৮১ জন। এ নিয়ে বিভাগে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ২০ হাজার ৭৭১। মোট সুস্থ হয়েছেন ১৬ হাজার ৬২২ জন। বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

বিজ্ঞাপন

রোববার সকাল ৮টা থেকে সোমবার সকাল ৮টা পর্যন্ত সংগ্রহ করা নমুনা পরীক্ষা করে ১০৭ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে বাগেরহাটে ৭, চুয়াডাঙ্গায় ১৩, যশোরে ২৭, ঝিনাইদহে ৯, খুলনায় ২১, কুষ্টিয়ায় ২০, মাগুরা ও মেহেরপুরে ৫ জন করে রয়েছেন। এই সময়ে নড়াইল ও সাতক্ষীরায় কোনো রোগী শনাক্ত হয়নি। একই সময়ে সুস্থ হওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে বাগেরহাটে ১, চুয়াডাঙ্গায় ২১, যশোরে ৪০, ঝিনাইদহে ২৫, খুলনায় ৩৮, কুষ্টিয়ায় ৩৭, মাগুরায় ৫, মেহেরপুরে ৪ ও সাতক্ষীরায় ১০ জন রয়েছেন।

স্বাস্থ্য বিভাগের সূত্রে জানা যায়, বিভাগে এ পর্যন্ত খুলনা জেলায় সর্বোচ্চ ৬ হাজার ১০৬ জন রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এ ছাড়া যশোরে ৩ হাজার ৬৭৯, কুষ্টিয়ায় ৩ হাজার ৬৩, ঝিনাইদহে ১ হাজার ৮০৮, চুয়াডাঙ্গায় ১ হাজার ৩৫৯, নড়াইলে ১ হাজার ২৬৩, সাতক্ষীরায় ১ হাজার ৭৭, বাগেরহাটে ৯৫৫, মাগুরায় ৮৮০ ও মেহেরপুরে ৫৮১ জনের করোনাভাইরাস ধরা পড়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিভাগে এ ভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে মারা গেছেন ৩৫৮ জন। এর মধ্যে খুলনায় ৯৩, কুষ্টিয়ায় ৬৪, বাগেরহাটে ২২, চুয়াডাঙ্গা ও ঝিনাইদহে ৩১ জন করে, যশোরে ৪২, নড়াইলে ১৮, সাতক্ষীরায় ৩০, মাগুরায় ১৩ ও মেহেরপুরে ১৪ জন করে রয়েছেন।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক রাশেদা সুলতানা বলেন, এ বিভাগে শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮০ শতাংশের কিছু বেশি। সংক্রমিত ব্যক্তিদের মধ্যে মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৭২ শতাংশ।

মন্তব্য পড়ুন 0