শিশুটির বাবা জহুরুল ইসলাম জানান, গত বুধবার দুপুরে উপজেলার পশ্চিম সোনাপাতিল এলাকায় শিশুটি তার দাদার সঙ্গে গোসলে নামে। একপর্যায়ে দাদার হাত ফসকে শিশুটি নিখোঁজ হয়। খবর পেয়ে ওই দিন বিকেলে শিশুটিকে উদ্ধারে নামে রাজশাহী ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল। বুধবার সন্ধ্যা পর্যন্ত উদ্ধারের চেষ্টা চালিয়ে শিশুটির সন্ধান না পেয়ে উদ্ধার অভিযান বন্ধ করে দেওয়া হয়। পরে স্থানীয় লোকজন শিশুটিকে উদ্ধারে তৎপর হন।

গতকাল সন্ধ্যায় ঘটনাস্থল থেকে কিছুটা ভাটিতে শিশুটির মরদেহ ভেসে ওঠে। পুলিশের উপস্থিতিতে মরদেহ উদ্ধার করে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়। রাতেই জানাজা শেষে তাকে দাফন করা হয়।

নলডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিকুল ইসলাম নিখোঁজ শিশুর মরদেহ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, শিশুটির মরদেহ ভেসে ওঠায় স্থানীয় লোকজন তা উদ্ধার করেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন