নরসিংদীতে আরও ১৮ জন শনাক্ত, আক্রান্ত ছাড়াল সাড়ে ৫০০

বিজ্ঞাপন
default-image

নরসিংদীতে নতুন করে আরও ১৮ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছেন। স্বাস্থ্য বিভাগের হিসাবে এ নিয়ে জেলায় কোভিড-১৯ রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫৬৩ জনে। আজ মঙ্গলবার সকালে প্রথম আলোকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন জেলার সিভিল সার্জন মো. ইব্রাহিম।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত ৭ এপ্রিল জেলায় প্রথম কোভিড-১৯-এ আক্রান্ত এক ব্যক্তি শনাক্ত হন। এ পর্যন্ত সিভিল সার্জন কার্যালয়ের তালিকায় থাকা ৭ জন কোভিড-১৯-এ আক্রান্ত ব্যক্তি মারা গেছেন। তাঁদের মধ্যে সদর উপজেলার ৫ জন এবং পলাশ ও বেলাব উপজেলার একজন করে আছেন। এ ছাড়া এই কদিনে উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন আরও অন্তত ১১ জন। অন্যদিকে আক্রান্ত হওয়ার পর আজ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ২০১ জন।

সিভিল সার্জনের কার্যালয় জানায়, গত ২৭ মে বুধবার করোনা সন্দেহে ৯৫ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরদিন পরীক্ষার জন্য রাজধানীর মহাখালীর ইনস্টিটিউট অব পাবলিক হেলথে পাঠানো হয়। গতকাল সোমবার রাত সাড়ে ৯টায় পাওয়া এসব নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে নতুন করে আরও ১৮ জনকে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত করা হয়। নতুন করে আক্রান্তদের মধ্যে সদর উপজেলার ১৫ জন এবং পলাশ, শিবপুর ও মনোহরদী উপজেলার একজন করে রয়েছেন।

জেলা করোনা প্রতিরোধ জরুরি সেলের কর্মকর্তারা জানান, গতকাল পর্যন্ত জেলার ৬টি উপজেলা থেকে মোট ৩ হাজার ৪০৫ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। তার মধ্যে পরীক্ষা করা হয়েছে ৩ হাজার ১৯৫ জনের নমুনা। তাঁদের মধ্যে ৫৬৩ জনকে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত করা হয়। জেলাজুড়ে আক্রান্তদের মধ্যে সদর উপজেলায় ৩৯৪ জন, রায়পুরায় ৪১ জন, পলাশে ৪০ জন, শিবপুরে ৩৭ জন, বেলাবতে ৩৭ জন ও মনোহরদীতে ১৪ জন আছেন। আক্রান্ত লোকজনের ১৫ জন হাসপাতালে আইসোলেটেশনে এবং ৩১৪ জন বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।

নরসিংদীর সিভিল সার্জন মো. ইব্রাহিম জানান, বর্তমানে নমুনা সংগ্রহের হার বাড়ার পাশাপাশি আক্রান্ত ব্যক্তির সংখ্যাও ব্যাপক হারে বাড়ছে। নতুন করে যাঁরা আক্রান্ত হচ্ছেন, তাঁদের পরিবারের সদস্য ও সংস্পর্শে আসা লোকজনের নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে। তাঁদের হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতেও বাধ্য করা হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন