default-image

নরসিংদীতে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ২৭ জনের শরীরে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলাজুড়ে করোনা সংক্রমিতের মোট সংখ্যা দাঁড়াল ১ হাজার ২৪৩। এর মধ্যে আক্রান্ত হওয়ার পর এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৬৫৫ জন। আজ সোমবার দুপুরে প্রথম আলোর কাছে এসব তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন সিভিল সার্জন মোহাম্মদ ইব্রাহিম।

সিভিল সার্জন মোহাম্মদ ইব্রাহিম জানান, ১৪ জুন করোনায় আক্রান্ত সন্দেহে মোট ৯৩ জনের নমুনা সংগ্রহ করে তা পরীক্ষার জন্য রাজধানীর মহাখালীর ইনস্টিটিউট অব পাবলিক হেলথে পাঠানো হয়। আজ সকালে হাতে পাওয়া এসব নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে নতুন করে ১৮ জনকে করোনা পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত করা হয়। তাঁদের মধ্যে সদর উপজেলায় রয়েছেন ৭ জন, মনোহরদীতে ২, শিবপুরে ২, রায়পুরায় ৩ ও বেলাব উপজেলায় ৪ জন রয়েছেন।

এ ছাড়া মাধবদী থেকে ঢাকায় সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানে (আইইডিসিআর) পাঠানো ৩৫ জনের নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে সদর উপজেলার ৬ জনকে করোনা পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত করা হয়েছে। অন্যদিকে ইনফ্লুয়েঞ্জা সার্ভেইল্যান্সের আওতায় ২০ জুন ঢাকার মহাখালীতে আন্তর্জাতিক উদরাময় গবেষণা কেন্দ্র, বাংলাদেশ (আইসিডিডিআরবি) ল্যাবে পাঠানো ১২টি নমুনার মধ্যে সদর উপজেলার ৩ জন করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ২৭ জন শনাক্ত হলেন।

সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, গতকাল রোববার পর্যন্ত জেলার ৬টি উপজেলা থেকে মোট ৬ হাজার ৫৫৬ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। তার মধ্যে পরীক্ষা শেষে ৫ হাজার ৭৭৯ জনের নমুনার ফলাফল পাওয়া গেছে। তাঁদের মধ্যে ১ হাজার ২৪৩ জন করোনা পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন।

জেলাজুড়ে আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে সদর উপজেলায় রয়েছেন ৮২০ জন, রায়পুরায় ৮৫, পলাশে ১০১, শিবপুরে ১০৯, বেলাবতে ৬৮ ও মনোহরদীতে ৬০ জন রয়েছেন। বর্তমানে ২৯ জন আক্রান্ত ব্যক্তি বিভিন্ন হাসপাতালে এবং ৫৩০ জন হোম আইসোলেশনে আছেন। নতুন করে আক্রান্ত ব্যক্তিদের পরিবারের সদস্য ও সংস্পর্শে আসা লোকজনের নমুনা সংগ্রহ করে তাঁদের হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে বাধ্য করা হচ্ছে।

জেলায় এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত ২৭ জন তালিকাভুক্ত রোগী মারা গেছেন। তাঁদের মধ্যে সদর উপজেলায় রয়েছেন ১৭ জন, বেলাব ও রায়পুরা উপজেলায় ৩ জন করে, মনোহরদী উপজেলায় ২ জন এবং পলাশ ও শিবপুর উপজেলায় ১ জন করে রয়েছেন। অন্যদিকে করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন আরও অন্তত ৩৫ জন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0