default-image

নরসিংদীতে আজ বুধবার পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৩৯ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। তাঁদের নিয়ে এ জেলায় কোভিড রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ২ হাজার ২০৮ জন। বিকেলে সিভিল সার্জন এ তথ্য জানিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

গত ৭ এপ্রিল নরসিংদীতে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। এর ১৫৫ দিনে এ ভাইরাসে সংক্রমিত মানুষের সংখ্যা ২ হাজার ২০০ ছাড়াল। সংক্রমিত মানুষের সংখ্যা ১ হাজার ছাড়াতে সময় লেগেছিল ৬৬ দিন। পরবর্তী ১ হাজার জন সংক্রমিত হতে লাগে ৭৬ দিন। সর্বশেষ ২০৮ ব্যক্তি সংক্রমিত হতে লাগল ১৩ দিন।

নরসিংদীতে করোনায় সংক্রমিত মানুষের সংখ্যা ১ হাজার ছাড়াতে সময় লেগেছিল ৬৬ দিন। পরবর্তী ১ হাজার জন সংক্রমিত হতে লাগে ৭৬ দিন। সর্বশেষ ২০৮ ব্যক্তি সংক্রমিত হতে লাগল ১৩ দিন।
বিজ্ঞাপন

সিভিল সার্জনের কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে নরসিংদীর ১০৩ জনের নমুনা পরীক্ষার জন্য রাজধানীর মহাখালীর ইনস্টিটিউট অব পাবলিক হেলথে (আইপিএইচ) পাঠানো হয়। আজ দুপুরে হাতে পাওয়া পরীক্ষার ফলাফলে ৩৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়। তাঁদের মধ্যে সদরের ৩৩, শিবপুরের ৩, বেলাবর ২ ও মনোহরদী উপজেলার ১ জন রয়েছেন।

এ জেলায় কোভিড-১৯-এ ৪২ জন মারা গেছেন। তাঁদের মধ্যে সদরের ২৫, বেলাব ও রায়পুরার ৬ জন করে, মনোহরদী ও পলাশের ২ জন করে এবং শিবপুরের ১ জন রয়েছেন। এ রোগের উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন আরও অন্তত ৬০ জন।

বিজ্ঞাপন
এ পর্যন্ত সুস্থতার হার ৮৫ দশমিক ৬০ শতাংশ।
মো. নুরুল ইসলাম, সিভিল সার্জন, নরসিংদী

সিভিল সার্জন কার্যালয়ের হিসাব অনুযায়ী, গতকাল পর্যন্ত এ জেলার ৬টি উপজেলা থেকে ১১ হাজার ১২৭ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হয়। তাঁদের মধ্যে ২ হাজার ২০৮ জনের করোনা ‘পজিটিভ’ আসেন। এর মধ্যে সদরে ১ হাজার ২৮৭, শিবপুরে ২২০, পলাশে ২৩৬, রায়পুরায় ১৫৫, বেলাবতে ১৪৭ ও মনোহরদীতে ১৬৩ জন রয়েছেন। বর্তমানে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত ১৫ জন কোভিড ডেডিকেটেড ১০০ শয্যাবিশিষ্ট নরসিংদী জেলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। বাসায় চিকিৎসাধীন ২৫৮ জন।

বিজ্ঞাপন

জানতে চাইলে সিভিল সার্জন মো. নুরুল ইসলাম জানান, নরসিংদীতে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৮৮৯ জন। তাঁদের মধ্যে সদরের ১ হাজার ১৩৪, শিবপুরের ১৮৮, পলাশের ১৬৬, মনোহরদীর ১৩৪, বেলাবর ১২৫ ও রায়পুরা উপজেলার ১৪২ জন। এ পর্যন্ত সুস্থতার হার ৮৫ দশমিক ৬০ শতাংশ।

মন্তব্য পড়ুন 0