বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

হাইওয়ে পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন জানান, ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক দিয়ে মোটরসাইকেলে চালকসহ তিনজন ঢাকার দিকে যাচ্ছিলেন। পাঁচদোনা বাজার এলাকায় পৌঁছালে তেলবাহী লরি ওই মোটরসাইকেলকে পেছন থেকে ধাক্কা দেয়। এতে মোটরসাইকেলের তিনজনই মহাসড়কের ওপর ছিটকে পড়েন। এতে ঘটনাস্থলেই শান্তা আক্তারের মৃত্যু হয়। পরে স্থানীয় লোকজন মোটরসাইকেলচালক সোহেল মিয়া ও নাজমা আক্তারকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে স্থানীয় একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যান।

খবর পেয়ে ইটাখোলা হাইওয়ে ফাঁড়ির পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে শান্তার লাশ উদ্ধার করে। পরে বেলা তিনটার দিকে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নাজমার মৃত্যু হয়। দুই নারীর লাশ নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

জানতে চাইলে ইটাখোলা হাইওয়ে ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. নূর হায়দার তালুকদার বলেন, লরিটি বেপরোয়া গতিতে যাচ্ছিল বলে জানা গেছে। দুর্ঘটনার পরই লরিটি নিয়ে চালক পালিয়ে যান। পরে মাধবদী থেকে হাইওয়ে পুলিশ লরিটি আটক করে। লরির চালক পালিয়ে গেছেন। এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন