default-image

নরসিংদীতে দীর্ঘ ৯৪ দিন পর করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) সংক্রমিত রোগী শনাক্তের সংখ্যা দুই অঙ্কের ঘর পেরোল। গত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় নতুন করে ১১ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। এর আগে গত বছরের ৭ ডিসেম্বর সর্বশেষ জেলায় দুই অঙ্কের সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছিল। ওই দিনও ১১ জনের করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছিল। গত তিন মাস প্রতিদিন গড়ে দুজনেরও মতো আক্রান্ত হওয়ার হিসাব দেখা গেলেও সম্প্রতি আক্রান্তের এই হার দিন দিন বাড়ছে। এই মুহূর্তে জেলায় করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ১১৫।

আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে প্রথম আলোকে এসব তথ্য জানিয়েছেন সিভিল সার্জন মো. নূরুল ইসলাম। তিনি বলেন, জেলায় এ পর্যন্ত কোভিডে আক্রান্ত হয়েছেন ২ হাজার ৮৪৯ জন। আক্রান্ত হওয়ার পর এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ২ হাজার ৭৩৪ জন। সুস্থতার হার প্রায় ৯৬ শতাংশ। সিভিল সার্জন বলেন, ‘করোনার দ্বিতীয় ঢেউ সামলাতে আমাদের আরও একটু সতর্ক হওয়ার সময় এসেছে। এ ক্ষেত্রে সবাইকে টিকা নেওয়ার ব্যাপারে আগ্রহী হতে হবে।’

গত তিন মাস প্রতিদিন গড়ে দুজনেরও মতো আক্রান্ত হওয়ার হিসাব দেখা গেলেও সম্প্রতি আক্রান্তের এই হার দিন দিন বাড়ছে। এই মুহূর্তে জেলায় করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ১১৫।

সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ৬৩ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য রাজধানীর মহাখালীর ইনস্টিটিউট অব পাবলিক হেলথে (আইপিএইচ) পাঠানো হয়। আজ হাতে পাওয়া এসব নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে ১০ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়। তাঁদের সবাই সদর উপজেলার বাসিন্দা। এ ছাড়া রায়পুরা জিন এক্সপার্ট মেশিনে নমুনা পরীক্ষায় একজন করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এ পর্যন্ত জেলার ৬টি উপজেলা থেকে মোট ১৯ হাজার ৩৪৩ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে ২ হাজার ৮৪৯ জন করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে সদর উপজেলায় রয়েছেন ১ হাজার ৭১৬ জন, শিবপুরে ২৮৫ জন, পলাশে ৩১৫ জন, মনোহরদীতে ১৮৮ জন, বেলাবতে ১৬০ জন ও রায়পুরায় ১৮৭ জন রয়েছেন।

কোভিড পজিটিভ শনাক্ত হওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে ৫২ জন মারা গেছেন। তাঁদের মধ্যে সদর উপজেলায় ২৯ জন, শিবপুর উপজেলায় ৭ জন, বেলাব ও রায়পুরা উপজেলায় ৬ জন করে এবং মনোহরদী ও পলাশ উপজেলায় ২ জন করে রয়েছেন।

সিভিল সার্জন কার্যালয় বলছে, গত তিন মাসে জেলায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২১৩ জন। এর মধ্যে ডিসেম্বরে ১০০ জন, জানুয়ারিতে ৩২ জন, ফেব্রুয়ারিতে ৩৬ জন ও গত ১১ দিনে ৪৫ জন রয়েছেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন