বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় ব্যবসায়ীরা বলছেন, হাটটির লুঙ্গিপট্টির একটি গলিতে বিকেল চারটার দিকে আগুনের শিখা দেখতে পান ব্যবসায়ী ও পাইকারেরা। এই আগুন ছড়িয়ে পড়তে শুরু করলে সবাই মিলে তা নেভানোর চেষ্টা করেন। খবর পেয়ে মাধবদী ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে এসে আগুন নেভাতে শুরু করে। দ্রুত এই আগুন পার্শ্ববর্তী দোকানগুলোতে ছড়িয়ে পড়লে নরসিংদীসহ আশপাশের ফায়ার সার্ভিসের আরও ছয়টি ইউনিট যোগ দেয়। পরে বিকেল সোয়া পাঁচটার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় হাটের ওই গলির অন্তত ৩০টি দোকান পুড়ে গেছে।

হাটটির লুঙ্গিপট্টির একটি গলিতে বিকেল চারটার দিকে আগুনের শিখা দেখতে পান ব্যবসায়ী ও পাইকারেরা। খবর পেয়ে মাধবদী ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে এসে আগুন নেভাতে শুরু করে।
default-image

স্থানীয় কয়েকজন ব্যবসায়ী বলেন, কোন দোকান থেকে এই আগুনের সূত্রপাত হয়েছে, তা জানা যায়নি। আগুন লাগার খবর পেয়ে দৌড়ে এসে তাঁরা দেখেন দোকান পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এমনিতেই করোনার কারণে দুই বছর ধরে ব্যবসা একেবারে মন্দা, তার ওপর এই আগুনে ব্যবসায়ীদের অন্তত কয়েক কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

নরসিংদী ফায়ার সার্ভিসের উপসহকারী পরিচালক মো. নুরুল ইসলাম বলেন, ‘কীভাবে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে, তা আমরা এখনো নিশ্চিত নই। এটা তদন্তের পর বলা যাবে। তবে আমাদের আটটি ইউনিট প্রায় এক ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে এনেছে।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন