বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আহত ব্যক্তিদের মধ্যে কয়েকজন শিশুকে নাঙ্গলকোট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। গুরুতর আহত ব্যক্তিদের কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানান ওসি।

স্থানীয় ব্যক্তিরা জানান, বিরলি গ্রামের বাসিন্দা আনোয়ার হোসেন (৪০) নিজ বাড়ির উঠানে গ্যাস বেলুন বিক্রি করতেন। আজ বিকেলে গ্যাসের সিলিন্ডার বিস্ফোরণ হয়। সে সময় সেখানে উপস্থিত শিশুরা আহত হয়।

হাসপাতালে ভর্তি আহত ব্যক্তিরা হলেন, বেলুন ব্যবসায়ী আবুল কালামের ছেলে আনোয়ার হোসেন (৩৩), আনোয়ারের মেয়ে আফনান (৫), মরিয়ম (৭), বোন ফারজানা (১৭), আনোয়ারের সহযোগী ব্যবসায়ী ঝাটিয়াপাড়া গ্রামের আলী আকবরের ছেলে আবদুর রব (৩০), পৌরসভার নাওগোদা এলাকার মুসলিমুর রহমানের ছেলে আলমগীর (৩০), বিরুলী গ্রামের জাফরের মেয়ে উম্মে হাবিবা (৯), জসিমের ছেলে তুষার (৭), ফারুকের ছেলে রায়হান (১২), আবুল কালামের ছেলে বাছির (১৬), মাঈন উদ্দিনের ছেলে মাসুদ (১২), সেলিমের মেয়ে নিসু (১২), তার ছেলে সম্রাট (১০), শাহীনের মেয়ে শারমিন আক্তার (৫), আবদুল হালিমের ছেলে নাঈম (১৩), আবদুল কাদিরের স্ত্রী নাছরিন (৩৫), শাহাবুদ্দিনের ছেলে সবুজ (১১), সাইফুলের মেয়ে নুরুন্নাহার (৯) ও রতনের মেয়ে জান্নাত (৯)।

যোগাযোগ করলে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগ থেকে জানানো হয়, গ্যাস বিস্ফোরণে আহত ১০ জনের বেশি শিশুকে এ হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন