default-image

পিরোজপুরের নাজিরপুর উপজেলার শাঁখারীকাঠি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সম্মেলনস্থলে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের নেতা-কর্মীদের সংঘর্ষে অন্তত ১২ জন আহত হয়েছেন। রোববার বিকেলে উপজেলার চালিতাবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে দুই দফা সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় সম্মেলনস্থলের চেয়ার, টেবিল ও তোরণ ভাঙচুর করা হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা জানান, গতকাল বেলা তিনটার দিকে উপজেলার চালিতাবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে শাঁখারীকাঠি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সম্মেলনের কার্যক্রম শুরু হয়। এ সময় শাঁখারীকাঠি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী আল আমিন খান একটি মিছিল নিয়ে সম্মেলনস্থলে প্রবেশ করেন। পরে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আক্তারুজ্জামান ও সাধারণ সম্পাদক খালিদ হাসানের সমর্থকদের সঙ্গে আল আমিন খানের সমর্থকেরা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। পরে বিকেল পাঁচটার দিকে জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মজিবুর রহমান সভাস্থলে পৌঁছালে দ্বিতীয় দফা দুই পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। এতে দুই পক্ষের অন্তত ১২ জন আহত হন। সংঘর্ষ চলার সময় সম্মেলনস্থলের চেয়ার, টেবিল ও তোরণ ভাঙচুর করা হয়।

বিজ্ঞাপন

আল আমিন খান বলেন, ‘আমি মিছিল নিয়ে সম্মেলনস্থলে গেলে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. আক্তারুজ্জামান নেতৃত্বে হামলা করা হয়। এরপর বিকেল পাঁচটার দিকে জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মজিবুর রহমান সভাস্থলে পৌঁছালে দ্বিতীয় দফা হামলা করা হয়।’

মো. আক্তারুজ্জামান অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকপ্রত্যাশী আল আমিন খানের নেতৃত্বে প্রথম হামলা হয়। পরের হামলা কারা কীভাবে ঘটিয়েছে, তা আমার জানা নেই।

জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক শেখ ফিরোজ বলেন, সংঘর্ষের ঘটনায় সম্মেলন উদ্বোধন করে কার্যক্রম বন্ধ করা হয়।

নাজিরপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. জাকারিয়া বলেন, দুই পক্ষের নেতা–কর্মীদের হামলায় কিছু চেয়ার ভাঙচুর হয়েছে। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন