default-image

নাটোর সদর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসা কর্মকর্তা রাজেশ কুমার সাহাসহ নাটোরে আরও ২৯ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় মোট কোভিড–১৯ রোগীর সংখ্যা ২৪৪।

নাটোর সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও ঢাকার একটি পিসিআর ল্যাব থেকে গতকাল শনিবার দুই দফায় নমুনা পরীক্ষার ফলাফল পাঠানো হয়। এতে সদর উপজেলায় নমুনা সংগ্রহের দায়িত্বে থাকা চিকিৎসক কর্মকর্তা রাজেশ কুমার সাহার করোনা পজেটিভ এসেছে। এ ছাড়া কোভিড–১৯ রোগী উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমানের স্ত্রী, গৃহকর্মী ও তাঁর ফ্ল্যাটের অপর একজনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় মোট ১২ জন স্বাস্থ্যকর্মীর করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হলো। তাঁদের ৯ জন এখনো অসুস্থ।

এ ছাড়া নলডাঙ্গা থানার দুই পুলিশ সদস্যের করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। সব মিলিয়ে জেলায় মোট ২৪৪ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হলো। এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৬৬ জন। অসুস্থ ব্যক্তিদের মধ্যে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান সদর হাসপাতালে এবং অন্যরা বাড়িতে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

জেলার সিভিল সার্জন কাজী মিজানুর রহমান বলেন, এ পর্যন্ত জেলায় ৪ হাজার ২০০ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য বিভিন্ন ল্যাবে পাঠানো হয়েছিল। ফলাফল এসেছে ৩ হাজার ৫০০ জনের। নানা ধরনের ত্রুটির কারণে এখন পর্যন্ত ১৪৮টি নমুনা বাতিল করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0