পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, চাঁদ মিয়ার নাতি ইমরান হোসেন এবং রাজাপুর গ্রামের সুজন হোসেন ও মো. বাপ্পী সমবয়সী। তাঁরা একজন আরেকজনকে তুই বলে সম্বোধন করেন। এটা নিয়ে তাঁদের মধ্যে কথা–কাটাকাটি হয়। পরে বাপ্পী ও সুজন আরও কয়েকজনকে নিয়ে এসে ইমরানকে মারধর করেন। এ সময় নাতিকে বাঁচাতে গেলে চাঁদ মিয়াকেও কিল-ঘুষি মারতে থাকেন তাঁরা। এতে ঘটনাস্থলেই চাঁদ মিয়ার মৃত্যু হয়।

চন্দ্রগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোসলেহ উদ্দিন বলেন, কিল-ঘুষিতে বৃদ্ধ মারা গেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। লাশটি উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে একজনকে আটক করা হয়েছে। বাকিদের আটকের চেষ্টা চলছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন