default-image

ময়মনসিংহের নান্দাইলে রেললাইন থেকে অজ্ঞাতপরিচয় এক নারীর (৩০) খণ্ডিত লাশ উদ্ধার করেছে কিশোরগঞ্জ রেলওয়ে পুলিশ। আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার চণ্ডীপাশা ইউনিয়নের বাহের বানাইল গ্রামে ময়মনসিংহ-ভৈরব রেলপথে লাশটির বিভিন্ন টুকরা ছড়িয়ে–ছিটিয়ে পড়ে ছিল।

পুলিশ ও গ্রামবাসী সূত্রে জানা যায়, ওই রেলপথে ঘটনাস্থলটির কাছাকাছি থাকা সিগন্যালটি ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার আঠারবাড়ি রেলস্টেশনের আওতাধীন। বাহের বানাইল গ্রামের কৃষক মো. মোশারফ হোসেন (৩৫) প্রথম খণ্ডবিখণ্ড লাশটি পড়ে থাকতে দেখেন। তিনি ফজরের নামাজ শেষে রেললাইনের পাশ ধরে হেঁটে নিজের জমি দেখছিলেন। এ সময় তিনি চুড়ি পরা একটি খণ্ডিত হাত পড়ে থাকতে দেখে আঁতকে ওঠেন। এরপর আশপাশে ভালো করে তাকিয়ে দেখেন মাথার খুলি, একটি পা, ঘিলু ছড়িয়ে–ছিটিয়ে পড়ে রয়েছে। দেহটি রেলপথের মাঝখানে ও অন্য পাশে এক জোড়া জুতা, ছেঁড়া কাপড় ও বোরকা পড়ে থাকতে দেখেন। পরে তিনি গ্রামের আরও লোকজনকে ডেকে ঘটনাস্থলে আনেন। তাঁরা কেউ নিহত নারীকে শনাক্ত করতে পারেননি।

লাশটির একটি হাত, মাথার খুলি, একটি পা, ঘিলু রেললাইনের আশপাশে ছড়িয়ে–ছিটিয়ে ছিল। দেহটি রেলপথের মাঝখানে ও অন্য পাশে এক জোড়া জুতা, ছেঁড়া কাপড় ও বোরকা পড়ে ছিল।

গ্রামবাসী ধারণা করছেন, নারীটি ট্রেন দুর্ঘটনায় নয়, তাঁকে খুন করা হয়েছে। তাঁদের ভাষ্য, ট্রেনে কাটা পড়ে ওই নারীর মৃত্যু হলে লাশটি এতগুলো টুকরা হওয়ার কথা নয়।

কিশোরগঞ্জ রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. এমদাদুল হক জানান, নারীর লাশের খণ্ডিত অংশগুলো রেলপথ থেকে উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় আইনি প্রক্রিয়া শুরু করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন