default-image

রাত তখন সাড়ে ১২টা। একটি বস্তাসহ নাফ নদী সাঁতরে মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশ সীমান্তে অবৈধভাবে প্রবেশ করেন এক ব্যক্তি। সঙ্গে সঙ্গেই স্পিডবোট নিয়ে তাঁকে ধাওয়া করেন কোস্টগার্ডের সদস্যরা। বস্তা ফেলেই ওই ব্যক্তি তখন আবার সীমান্তের জিরো লাইন অতিক্রম করেন। পরে ফেলে যাওয়া বস্তা থেকে ১ লাখ ৫ হাজার ইয়াবা জব্দ করে কোস্টগার্ড।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে এই ঘটনা ঘটে কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার সাবরাং ইউনিয়নের বড় খাল-সংলগ্ন নাফ নদীতে। আজ শুক্রবার কোস্টগার্ড টেকনাফ স্টেশনের লেফটেন্যান্ট কমান্ডার সাইয়েদুল মোরসালিন জানিয়েছেন, পালিয়ে যাওয়া ওই ব্যক্তি মূলত ইয়াবা পাচার করতেই নাফ নদী সাঁতরে বাংলাদেশ সীমান্তে প্রবেশ করেন। তবে সাঁতরে আবার সীমান্তের জিরো লাইন অতিক্রম করায় তাঁকে আটক করা সম্ভব হয়নি।  

কোস্টগার্ড জানিয়েছে উদ্ধার হওয়া ইয়াবার দাম প্রায় ৩ কোটি টাকা। সাইয়েদুল মোরসালিন বলেন, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে মিয়ানমার থেকে ইয়াবার একটি বড় চালান পাচারের গোপন তথ্যের ভিত্তিতে টহল জোরদার করা হয়। রাত সাড়ে ১২টার দিকে নাফ নদী সাঁতরে একজন পাচারকারীকে একটি বস্তাসহ অনুপ্রবেশ করতে দেখেন কোস্টগার্ডের সদস্যরা। পরে তাঁরা স্পিডবোট নিয়ে ধাওয়া করলে পাচারকারী ব্যক্তি বস্তা ফেলে পালিয়ে যান। পরে বড় খাল-সংলগ্ন নাফ নদী থেকে বস্তাটি উদ্ধার করা হয়।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন