default-image

নাব্যতা-সংকটে মাদারীপুরের কাঁঠালবাড়ি ও মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া নৌপথে ফের বন্ধ হয়ে গেছে ফেরি চলাচল। দুর্ঘটনা এড়াতে আজ রোববার বেলা ২টা থেকে এই নৌপথে সব ধরনের দুর্ঘটনা এড়াতে ফেরি চলাচল বন্ধ রাখা হয়। কাঁঠালবাড়ি ফেরিঘাটের ব্যবস্থাপক আব্দুল আলিম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

বিজ্ঞাপন

আজ রোববার সকাল থেকে এই নৌপথে ফেরি চলাচল ব্যাহত হচ্ছিল। কাঁঠালবাড়ি ঘাট সূত্রে জানা যায়, সকালে কাঁঠালবাড়ি ঘাট থেকে দুটি কে-টাইপ (ছোট) ফেরি শিমুলিয়ার উদ্দেশে ছেড়ে যায়। তবে শিমুলিয়া থেকে কোনো ফেরি আসেনি। শিমুলিয়া থেকে কাঁঠালবাড়ি প্রবেশের পথে লৌহজং পয়েন্টে চরের কিছু অংশ ভেঙে যাওয়ায় প্রবেশপথটি সরু হয়ে আছে। এ ছাড়া স্থানটির পাশেই খননের পাইপ রয়েছে। ফলে নৌপথটি আরও সরু হওয়ায় ফেরি চলাচল বন্ধ রয়েছে।
বিআইডব্লিউটিসির কাঁঠালবাড়ি ঘাটের সহকারী ব্যবস্থাপক সামসুল আবেদিন বলেন, ‘কাঁঠালবাড়ি থেকে সকালে দুটি ফেরি যানবাহন নিয়ে ছাড়া হয়। এরপর আর ফেরি ছাড়া হয়নি। নৌ-চ্যানেলে নানা সমস্যা থাকায় শিমুলিয়া থেকে আমাদের ঘাটে কোনো ফেরি আসতে পারছে না। তাই আপাতত ফেরি চলাচল বন্ধ।’

বিজ্ঞাপন

শিমুলিয়া ঘাটের মেরিন কর্মকর্তা আহমদ আলী বলেন, ‘চ্যানেল প্রবেশপথের কিছু স্থান ভেঙে যাওয়ায় পথ সরু হয়ে গেছে। ওখানে খননযন্ত্র থাকায় ফেরি প্রবেশ করতে পারছে না। নৌপথ স্বাভাবিক করতে কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলাপ হয়েছে। স্বাভাবিক হলেই আমরা ফেরিতে পরিবহন লোড নেব।’
এ সম্পর্কে বিআইডব্লিউটিএর অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী সাইদুর রহমান প্রথম আলোকে বলেন, ‘পলি অপসারণের জন‍্য খনন চলছে। আশা করছি দ্রুত সমস্যার সমাধান হবে।’

বিজ্ঞাপন

নাব্যতা-সংকটে ৩ সেপ্টেম্বর থেকে টানা ৯দিন এই নৌপথে বন্ধ ছিল ফেরি চলাচল। গত শুক্রবার বিকেলে পরীক্ষামূলক একটি রো রো ও দুটি কে-টাইপ ফেরি চলাচল শুরু করে। তবে রো রো ফেরিটি চ্যানেলের ডুবোচরে আটকে যায়। শনিবার থেকে নৌপথে তিনটি কে-টাইপ ও দুটি মাঝারি আকারের ফেরি চলাচল শুরু করে।

মন্তব্য পড়ুন 0