default-image

নারায়ণগঞ্জে নতুন করে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে আরও দুজনের মৃত্যু হয়েছে। নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন আরও ২৭ জন। এ নিয়ে জেলায় করোনায় দুই চিকিৎসকসহ ১৩০ জনের মৃত্যু হলো। মোট করোনায় শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ১১৩। শুক্রবার বিকেলে জেলা সিভিল সার্জন অফিস থেকে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

এ বিষয়ে জেলা করোনাবিষয়ক ফোকাল পারসন সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা জাহিদুল ইসলাম প্রথম আলোকে জানান, করোনায় সংক্রমিত হয়ে আরও দুজনের মৃত্যু হয়েছে। তিনি বলেন, শহরের সৈয়দপুর এলাকায় ৬৫ বছর বয়সী এক ব্যক্তির এবং শহরের খানপুর এলাকার ৬৫ বছর বয়সী আরেক ব্যক্তি ৩০০ শয্যা করোনা সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে মারা যান।

জাহিদুল ইসলাম আরও জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৪৪৯ জনের। নতুন করে করোনায় শনাক্ত হয়েছেন ২৭ জন। আইসোলেশনে মোট সুস্থ হয়েছেন ৫ হাজার ৬৯৮ জন। জেলায় মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৩৪ হাজার ৫৪৫ জনের।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, সিটি এলাকায় করোনায় সংক্রমিত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৬৯ জনের। করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ২ হাজার ১৫০ জন, নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১১ হাজার ৩ জনের। আইসোলেশনে থেকে সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৯৫৫ জন।

সদর উপজেলায় করেনায় সংক্রমিত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ২৩ জনের, করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ১ হাজার ৪০৮ জন, সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৩৩২ জন ও নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ৬ হাজার ৪৪১ জনের। বন্দর উপজেলায় করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৩ জনের, সংক্রমিত হয়েছেন ২৫৬ জন, সুস্থ হয়েছেন ২৩৫ জন ও নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১ হাজার ৬০৫ জনের। আড়াইহাজারে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৪ জনের, সংক্রমিত হয়েছেন ৫৬৬ জন, সুস্থ হয়েছেন ৫৪৬ জন ও নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ২ হাজার ৮২৫ জনের। রূপগঞ্জ উপজেলায় করোনায় সংক্রমিত হয়ে ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ১ হাজার ১৯০ জন। আইসোলেশনে সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ১৪০ জন এবং নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১০ হাজার ৪০৪ জনের। সোনারগাঁয়ে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ২১ জনের, সংক্রমিত হয়েছেন ৫৪৩ জন, নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ২ হাজার ২৬৭ জনের ও সুস্থ হয়েছেন ৪৯০ জন।

প্রসঙ্গত, দেশে করোনা পরিস্থিতিতে গত ৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম করোনায় সংক্রমিত তিন রোগীর দুজন নারায়ণগঞ্জের। ৩০ মার্চ করোনায় এক নারীর মৃত্যু হয়। গত ৭ এপ্রিল করোনা সংক্রমণের জন্য নারায়ণগঞ্জকে অতি ঝুঁকিপূর্ণ জেলা হিসেবে চিহ্নিত করেছিল আইইডিসিআর।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0