ফতুল্লা মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) তরিকুল ইসলাম প্রথম আলোকে হত্যাকাণ্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, জাহিদ হাসান সকাল ছয়টার দিকে শহরের গলাচিপা এলাকার মেস বাসা থেকে নিজ কর্মস্থলে যাচ্ছিলেন। পথে শেরেবাংলা রোড এলাকায় তাঁকে ছুরিকাঘাত করা হয়। পথচারী ও সহকর্মীরা তাঁকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে শহরের খানপুরের ৩০০ শয্যার হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সকাল সাতটার দিকে তাঁর মৃত্যু হয়।

ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রকিবুজ্জামান প্রথম আলোকে বলেন, ওই ব্যক্তিকে কী কারণে হত্যা করা হয়েছে, তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। এটা ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাত নাকি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড, তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

ওসি মো. রকিবুজ্জামান আরও বলেন, লাশটি ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন