বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ইফতার অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব হাবিব–উন–নবী খান সোহেল এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় কমিটি সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ জেলা বিএনপির নেতাদের অংশ নেওয়ার কথা ছিল।

নারায়ণগঞ্জ জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান প্রথম আলোকে বলেন, কমিউনিটি সেন্টারে নেতা–কর্মীরা আসা শুরু করলে বেলা আড়াইটার দিকে ফতুল্লা মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মাহবুবের নেতৃত্বে একদল পুলিশ আসে। তারা ইফতার অনুষ্ঠানে বাধা দেয় এবং না করার জন্য হুমকি দেয়। পরে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের কাছে গেলেও তাঁরা অনুমতি দেননি।

জেলা পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম প্রথম আলোকে বলেন, বিষয়টি তাঁর জানা নেই। অনুমতির জন্য কেউ তাঁর কাছে আসেননি।

জেলা বিএনপির সদস্যসচিব মামুন মাহমুদ প্রথম আলোকে বলেন, ইফতার অনুষ্ঠান না করার জন্য পুলিশ এসে চাপ প্রয়োগ করে এবং কমিউনিটি সেন্টার ত্যাগ না করলে নেতা–কর্মীদের গ্রেপ্তার করার হুমকি দেয়। পরে বিষয়টি নিয়ে পুলিশ সুপারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও তিনি অনুমতি দেননি।

এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) তরিকুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, সেখানে দুর্ঘটনা ঘটেছে, এমন তথ্য পেয়ে পুলিশ গিয়েছিল। পরে পুলিশ সদস্যদের তিনি চলে আসতে বলেছিলেন। অনুষ্ঠান বন্ধের বিষয়ে তিনি কিছুই জানেন না।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন