default-image

নারায়ণগঞ্জ ও কুমিল্লায় পৃথক দুটি অভিযান চালিয়ে নিষিদ্ধঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জেএমবির আরও দুই সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। গত শনিবার রাতে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ ভাঙাপুল থেকে তাওহীদুল ইসলাম (২৪) ও কুমিল্লার দাউদকান্দির গোয়ালমারী এলাকা থেকে আরাফত হোসাইন (২০) নামের দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় তাঁদের কাছ থেকে উগ্রবাদী নথিপত্রের কপি ও দুটি স্মার্টফোন জব্দ করা হয়।

আজ রোববার রাতে র‌্যাব-১১–এর সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার সুমিনুর রহমান স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

গ্রেপ্তার হওয়া তাওহীদুল ইসলাম ওরফে জিহাদি তামান্নার বাড়ি সাতক্ষীরার কালীগঞ্জ উপজেলার নীলকণ্ঠপুর এলাকায়। আরাফত হোসাইনের বাড়ি কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার পাঁচগাছিয়া এলাকায়। এর আগে শুক্রবার সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরের একটি বাড়িতে অভিযান চালিয়ে জেএমবির চার সদস্যকে গ্রেপ্তার করে র‍্যাব।

বিজ্ঞাপন

র‍্যাবের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গ্রেপ্তার হওয়া আসামিদের (তাওহীদুল ও আরাফাত) প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ ও অনুসন্ধানে জানা যায়, তাঁরা অনলাইনে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে উগ্রবাদী লেখকদের বক্তব্য শুনে ও লেখা পড়ে উগ্রবাদের দিকে ধাবিত হন এবং জেএমবিতে যোগ দেন। পরে সংগঠনের পরামর্শে বিভিন্ন অ্যাপ ব্যবহার করে গোপন অনলাইন জিহাদি দলে যুক্ত হয়ে কর্মকাণ্ড চালাতে থাকেন এবং নিয়মিত চাঁদা দেওয়া শুরু করেন। তাঁরা অনলাইনে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের জেএমবি সদস্যদের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যমে তহবিল সংগ্রহ, নতুন কর্মপরিকল্পনা নির্ধারণ, আঞ্চলিক কর্মকাণ্ড পরিচালনা, জেলহাজতে আটক থাকা জেএমবি সদস্যদের মুক্ত করা, নাশকতামূলক কর্মকাণ্ডের পরিকল্পনাসহ সংগঠনের প্রস্তুতিমূলক গোপন বৈঠক ও বিভিন্ন জিহাদি কার্যক্রম চালিয়ে আসছিলেন। পাশাপাশি বিভিন্ন অনলাইন অ্যাপ ব্যবহার করে শিক্ষিত ও সমমনা তরুণদের উগ্রবাদী মতাদর্শে উদ্বুদ্ধ করে আসছিলেন। তাঁদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের প্রক্রিয়া চলছে।

মন্তব্য পড়ুন 0