বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেন, ‘আমি দীর্ঘদিন ধরে শান্তিপূর্ণ নারায়ণগঞ্জ প্রতিষ্ঠা ও উন্নয়নের লক্ষ্যে কাজ করছি। আমার উন্নয়নমূলক কাজে আপনারা সব সময় পাশে ছিলেন। এবারের নির্বাচনেও আমার পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি দেওয়ায় আপনাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।’

রফিউর রাব্বি বলেন, ‘নারায়ণগঞ্জে দীর্ঘদিন ধরে অপশক্তির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে অব্যাহত রয়েছে। সেই লড়াইয়ে সেলিনা হায়াৎ আইভী সাহসিকতার সঙ্গে আমাদের পাশে রয়েছেন। নারায়ণগঞ্জকে সন্ত্রাসমুক্ত, বাসযোগ্য একটি নাগরিকবান্ধব শহর গড়ে তোলার ক্ষেত্রে আগামী দিনেও তিনি অপরিহার্য।’ আগামী শনিবার বিকেলে নগরের আলী আহাম্মদ চুনকা নগর পাঠাগার ও মিলনায়তন প্রাঙ্গণে আইভীর পক্ষে নাগরিক কমিটির উদ্যোগে মতবিনিময় সভা করা হবে বলে তিনি জানান।

২০১১ সালের ৩০ অক্টোবর প্রথম নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মেয়র পদে সমর্থন দেয় শামীম ওসমানকে। ওই নির্বাচনে নাগরিক পরিষদের প্রার্থী হলে সেলিনা হায়াৎ আইভীকে সমর্থন জানায় নাগরিক কমিটি। ওই নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক ছিলেন এস এম আকরাম ও সদস্যসচিব ছিলেন রফিউর রাব্বি। ২০১৬ সালের ২২ ডিসেম্বর সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ছিলেন সেলিনা হায়াৎ আইভী। বিএনপির প্রার্থী ছিলেন সাখাওয়াত হোসেন। ওই নির্বাচনে আইভীকে সমর্থন দিয়েছিল নাগরিক কমিটি।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন