default-image

নারীদের বিদেশে পাঠানোর নামে প্রতারণার করার দায়ে রাজশাহীতে দুজনকে কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। শুক্রবার সকালে রাজশাহীর অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আবু আসলাম এই দণ্ড দেন।

কারাদণ্ডপ্রাপ্ত দুজন হলেন মো. মামুন হোসেন (৩০) ও জান্নাতুন নিশি (২১)। মামুনকে এক বছর ও নিশিকে তিন মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। এর আগে সকালে রাজশাহী নগরের মতিহার থানার ফুলতলা এলাকার একটি ভাড়া বাসায় অভিযান চালিয়ে ওই দুজনকে আটক করা হয়। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করে তাঁদের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

বিজ্ঞাপন

অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আবু আসলাম বলেন, কুষ্টিয়ার মানুন হোসনের সঙ্গে কাজলা এলাকার জান্নাতুন নিশির সম্পর্ক দুই বছর ধরে। মামুন সম্প্রতি কাজলা এলাকার নিপা বেগম নামের এক নারীর বাসা ভাড়া নেন। বাসাভাড়া নেওয়ার সময় মামুন বলেছিলেন, মাঝেমধ্যে তিনি এখানে এসে নারীদের ফ্যাশন ডিজাইনের প্রশিক্ষণ দেবেন। এরপর ৮০ থেকে শতভাগ স্কলারশিপে তাঁদের ফ্যাশন ডিজাইনের ওপর পড়াশোনার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে। সেখানে পড়াশোনা শেষ করে তাঁরা চাকরি করবেন জারা কোম্পানিতে। মামুনের শর্ত হচ্ছে, এই কাজে ১৮ থেকে ২২ বছর বয়সী নারী হতে হবে। বিবাহিত হলে তাঁদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে না। প্রতারণার এমন অভিযোগ পেয়ে অভিযান চালিয়ে দুজনকে আটক করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

প্রশাসন সূত্র জানায়, মামুন জারা কোম্পানির কোনো কাগজপত্র, কিংবা কোনো পাসপোর্ট ও ভিসাসংক্রান্ত কাগজপত্র দেখাতে পারেননি। তাঁর নিজের কোনো প্রতিষ্ঠানও নেই। নারীদের প্রলোভন দেখিয়ে ফাঁদে ফেলে প্রতারণা করে আসছিলেন তিনি।

মন্তব্য পড়ুন 0