default-image

শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে বিয়ের কথা বলে তরুণীকে (২০) ধর্ষণের অভিযোগে মজনু মিয়া (৩২) নামের একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল শুক্রবার রাতে মামলা হওয়ার পর আজ শনিবার ভোরে পুলিশ মজনুকে রাজধানীর খিলক্ষেত এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে।

নালিতাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বছির আহমেদ এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, গ্রেপ্তার মজনু মিয়া উপজেলার একটি গ্রামের বাসিন্দা। অভিযুক্ত ও অভিযোগকারী দুজনই গাজীপুরের একটি তৈরি পোশাক কারখানার কর্মী।

গতকাল রাতে মামলাটি করেন তরুণীর বাবা। এজাহারের বরাত দিয়ে থানা-পুলিশ জানায়, তরুণীকে নিয়ে তাঁর মা গাজীপুরের একটি পোশাক কারখানায় কাজ করতেন। কাজের সুবাদে ওই তরুণীর সঙ্গে মজনুর পরিচয় হয়।

মজনু নিজেকে অবিবাহিত দাবি করে ওই তরুণীকে বিয়ের প্রস্তাব দেন। এ বিষয়ে তরুণী তাঁর মায়ের সঙ্গে মজনুকে কথা বলতে বলেন। ২০ মার্চ পালিয়ে বিয়ে করার কথা বলে মজনু ওই তরুণীকে গাজীপুরে এক বন্ধুর বাড়িতে নিয়ে ধর্ষণ করেন।

নালিতাবাড়ী থানার ওসি বছির আহমেদ বলেন, ঢাকা থেকে মজনুকে নালিতাবাড়ীতে আনা হচ্ছে। এরপর তাঁকে আদালতে নেওয়া হবে। অন্যদিকে, অভিযোগকারী তরুণীকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য শেরপুর সদর হাসপাতালে পাঠানো হবে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন