default-image

কিশোরগঞ্জের নিকলী উপজেলায় দুই পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় একজন নিহত ও অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। বুধবার উপজেলার সিংপুর ইউনিয়নের গোড়াদীঘা গ্রামে গোবর ও খড় দিয়ে বানানো চটের (জ্বালানি কাজে ব্যবহার করা হয়) ওপর দিয়ে গরু চলে যাওয়াকে কেন্দ্র করে ওই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও এলাকার কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বুধবার বেলা ১১টার দিকে গোড়াদীঘা গ্রামের সাহার উদ্দিনের গরু একই গ্রামের শহরউদ্দিনের গোবর ও খড় দিয়ে বানানো চটের ওপর দিয়ে চলে যাওয়ায় কিছু চট নষ্ট হয়ে যায়। এ নিয়ে সাহার উদ্দিন ও শহর উদ্দিনের মধ্যে কথা–কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে উভয় পক্ষের লোকজন লাঠিসোঁটা নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হন। এতে সাহার উদ্দিনের লোকজনের ইটের আঘাতে শহর উদ্দিন (৪০) ঘটনাস্থলেই মারা যান এবং উভয় পক্ষের প্রায় ১০ জন আহত হন। এতে মতি মিয়া (৪৫), মফিজ আলী (৬৫), ফরসু মিয়া (২৫), আতাউর রহমান (৪০), মানিক মিয়া (৩৫), নূর আলম (২০), পরশ মিয়া (৯) ও অনন্যা আক্তার (৬) আহত হন।

বিজ্ঞাপন

আহত কয়েকজনকে কিশোরগঞ্জ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও নিকলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। অন্য ব্যক্তিদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

নিকলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শামছুল আলম ছিদ্দিকী বলেন, এ ব্যাপারে থানায় একটি হত্যা মামলা প্রক্রিয়াধীন। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এলাকায় পুলিশ মোতায়েন আছে। আসামি গ্রেপ্তারের অভিযান চলছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন