বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পুলিশ জানায়, গণি মিয়ার মেয়ে মিনহাজ আক্তার ওড্ডা গ্রামে তার মায়ের সঙ্গে নানার বাড়িতে থাকত। ১১ সেপ্টেম্বর বিকেলে ওই শিশু নিখোঁজ হয়। এরপর তাকে বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করা হয়।

বুধবার সকালে এক কৃষক জঙ্গল থেকে ঘাস আনতে গিয়ে মিনহাজ আক্তারের লাশ পড়ে থাকতে দেখেন। এরপর তিনি এলাকাবাসীকে বিষয়টি জানান। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।

এ বিষয়ে মিনহাজের মা সালমা বেগম বলেন, ‘আমার মেয়েকে হত্যা করা হয়েছে। আমি এ হত্যাকাণ্ডের বিচার চাই।’

বরুড়া থানার উপপরিদর্শক বিশ্বজিত পাল বলেন, ‘আমরা মিনহাজ আক্তারের মরদেহ উদ্ধার করেছি। তাঁর মৃত্যুর কারণ উদ্‌ঘাটনে তদন্ত চলছে।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন