বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আবুল মনসুরের বাবা শান্তু মিয়া বলেন, প্রায় এক যুগ ধরে স্বামীর অপেক্ষায় থাকার পর আবুল মনসুরের স্ত্রী কিছুদিন আগে অন্যত্র বিয়ে করে ঢাকায় চলে গেছেন। ওই নারী এখন ঢাকায় পোশাক কারখানায় চাকরি করেন।

default-image

স্থানীয় কলেজছাত্র আকাশ মিয়া বলেন, তাঁর বড় ভাই ঢাকায় থাকেন। একদিন একটি ইউটিউব চ্যানেলে রাস্তার মানুষের সাক্ষাৎকার প্রচার করা হচ্ছিল। সেখানে আবুল মনসুরকে দেখে চেনেন তাঁর বড় ভাই। পরে ইউটিউব চ্যানেলে সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে যোগাযোগ করে আবুলের সন্ধান মেলে। তাঁর বড় ভাই গত ২৭ আগস্ট আবুল মনসুরকে তাঁর পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দিয়েছেন।

আবুল মনসুরের মা লতিফা বেগম দীর্ঘ নিশ্বাস ছেড়ে বলেন, ‘একদিন আমার ছেলের সংসার, সন্তান সব আছিল। এহন আর কিছু নাই। গ্রামের সড়কে ঘুরে আর বিড়বিড় করে কী যেন কয়। আমরা গরিব মানুষ, সহায়-সম্পদ কিছু নাই। পরের জমি চাষ করে চলে সংসার। ছেলেরে ফিরা পাইয়া তার চিকিৎসা করাইতাছি। আপনারা যদি পারুইন, কিছু সহায়তা করুইন।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন