নিখোঁজ তরুণের লাশ পাওয়া গেল ধানখেতে

বিজ্ঞাপন
default-image

নিখোঁজের পাঁচ দিন পর কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলার একটি ধানখেত থেকে তরুণের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। আজ বুধবার বেলা একটায় বাড়েরা ইউনিয়নের দোবারিয়া গ্রামের ধানি জমি থেকে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

নিহত তরুণের নাম সুজন চন্দ্র সরকার (২২)। তিনি চান্দিনা উপজেলার কেরনখাল ইউনিয়নের ডুমুরিয়া গ্রামের ক্ষীতিশ চন্দ্র সরকারের ছেলে। সুজন চন্দ্র পেশায় কাঠমিস্ত্রি ছিলেন।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সুজনের ভাই যুবরাজ চন্দ্র সরকার বলেন, গত শুক্রবার বিকেলে সুজনের সঙ্গে তাঁর স্ত্রীর পারিবারিক নানা বিষয় নিয়ে কলহ হয়। এরপর রাগ করে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান তিনি। পরে বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করেও তাঁর সন্ধান পাওয়া যায়নি। আজ দুপুরে তাঁদের বাড়ি থেকে ৫০০ গজ দূরে দোবারিয়া গ্রামের আনোয়ার হোসেনের ধানি জমিতে ধান কাটতে যান একদল শ্রমিক। এ সময় শ্রমিকেরা দেখতে পান, ধানখেতের মধ্যে অর্ধগলিত অবস্থায় একজনের লাশ পড়ে আছে। এ সময় শ্রমিকেরা চিত্কার দিয়ে খেত থেকে বেরিয়ে এসে জমির মালিক ও এলাকার কয়েকজন ব্যক্তিকে জানান। এরপর তাঁরা ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ শনাক্ত করেন।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

চান্দিনা থানার উপপরিদর্শক মনিরুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, ডুমুরিয়া ও দোবারিয়া গ্রাম দুটি পাশাপাশি। নিহত তরুণের লাশ বাড়ির কাছের দোবারিয়া গ্রামের ধানি জমিতে উপুড় হয়ে পড়েছিল।


চান্দিনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শামসউদ্দীন মোহাম্মদ ইলিয়াস বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন না আসা পর্যন্ত এটি হত্যা না আত্মহত্যা, তা বলা যাচ্ছে না। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। পরিবারের পক্ষ থেকে কোনো মামলা করা হয়নি বলে তিনি জানান।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন