বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এ নিয়ে ৩১ অক্টোবর ‘নিজের ঠিকানা বলতে পারছেন না এই বৃদ্ধ’ শিরোনামে সচিত্র প্রতিবেদন প্রথম আলো অনলাইনে প্রকাশ করা হয়। সেই খবর নজরে এলে আবদুর রাজ্জাকের স্বজনেরা পাবনা সদর উপজেলার চর-সদিবাজপুর গ্রাম থেকে গতকাল সোমবার কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসেন।

হাসপাতালে আসা বৃদ্ধের মেয়ে হামেদা খাতুন জানান, ১৫ দিন আগে গাজীপুর থেকে পাবনায় আসার সময় তাঁর বাবা পথ ভুল করে হারিয়ে যান। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তাঁকে পাওয়া যাচ্ছিল না। গত রোববার প্রথম আলো অনলাইনে তাঁর বাবাকে নিয়ে খবর প্রকাশিত হয়। সোমবার তাঁরা সরাসরি কালীগঞ্জ হাসপাতালে গিয়ে তাঁর বাবার দেখা পান।

default-image

আবদুর রাজ্জাকের নাতি পাবনা কলেজে সম্মানের শিক্ষার্থী জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘দুই বছর আগে আমার দাদার স্ট্রোক হয়। এরপর থেকে তাঁর কথা অস্পষ্ট। এ কারণে এমনটি হয়েছে। পত্রিকার খবরের মাধ্যমে আমরা দাদাকে খুঁজে পেলাম।’

কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা অরুণ কুমার দাস বলেন, সংবাদপত্রের খবরে তাঁর স্বজনেরা ছুটে এসেছেন। আজ পুলিশ প্রশাসনের উপস্থিতিতে স্বজনদের কাছে তাঁকে হস্তান্তর করা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন