বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সালথা উপজেলার আটটি ইউনিয়নের মধ্যে সাতটিতে ১০ জন ‘বিদ্রোহী’ প্রার্থী। এর মধ্যে রামকান্তুপুরে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ইমারত হোসেন, উপজেলা কৃষক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ইসারত হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কামাল হোসেন, যদুনন্দীতে উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য নুরুজ্জামান ও আওয়মী লীগের সমর্থক কামরুজ্জামান মোল্লা; আটঘরে আওয়ামী লীগ কর্মী মো. শাহজাহান, মাঝারদিয়ায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সেলিম মিয়া, গট্টিতে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খন্দকার রেজাউর রহমান, বল্লভদীতে উপজেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি শাহিনুজ্জামান এবং সোনাপুরে আওয়ামী লীগের সমর্থক সোহেল রানা ‘বিদ্রোহী’ প্রার্থী হয়েছেন।

গট্টি ইউনিয়নে বিদ্রোহী প্রার্থী খন্দকার রেজাউর রহমান বলেন, ‘আমাকে দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হয়নি। অথচ আওয়ামী লীগের জন্য আমার বাবা ও আমি কিনা করছি।’

নগরকান্দা উপজেলার ৯টি ইউনিয়নের মধ্যে ৮টিতে বিদ্রোহী প্রার্থী রয়েছেন ১০ জন। এর মধ্যে রামনগরে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি কুদ্দুস ফকির, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি কাইমুদ্দীন মণ্ডল, চরযশোরদীতে উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম প্রচার সম্পাদক আরিফুর রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি খন্দকার ওয়াহিদুল বারী, তালমায় জেলা পরিষদের সাবেক সদস্য মো. কামাল হোসেন, পুরপাড়ায় আওয়ামী লীগ সমর্থক আতাউর রহমান, কোদালীয়া শহীদ নগরে আওয়ামী লীগের সমর্থক ইমামুল হক, কাইচাইলে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. কবির হোসেন, ডাঙ্গীতে সাইফুজ্জামান সরদার এবং ফুলসূতীতে ড়া তৌহিদুর রহমান ‘বিদ্রোহী’ প্রার্থী হয়েছেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন