default-image

নওগাঁর নিয়ামতপুরে করোনার উপসর্গ জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে এক স্কুলশিক্ষকের মৃত্যু হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তাঁর মৃত্যু হয়।


এই শিক্ষক (৬৫) নিয়ামতপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক এবং মৃত্যুর আগপর্যন্ত নিয়ামতপুর উত্তরা মডেল কিন্ডারগার্টেন স্কুলে কর্মরত ছিলেন। তিনি উপজেলার মুড়িহারী গ্রামের বাসিন্দা।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা তোফাজ্জল হোসেন জানান, জ্বর, কাশি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে ওই শিক্ষক গতকাল বুধবার বিকেলে হাসপাতালে আসেন। তাঁকে আইসোলেশন ইউনিটে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিল। আজ সকাল থেকে তাঁর শ্বাসকষ্ট বেড়ে যায়। তাঁর অবস্থার অবনতি হলে এবং হাসপাতালে নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্র (আইসিইউ) সুবিধা না থাকায় বেলা ১১টার দিকে তাঁকে ছাড়পত্র দিয়ে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তির জন্য রেফার্ড করা হয়। স্বজনেরা তাঁকে রাজশাহী নেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। এ অবস্থায় দুপুর ১২টার দিকে হাসপাতালেই তাঁর মৃত্যু হয়।

তোফাজ্জল হোসেন জানান, মৃত্যুর আগে শিক্ষকের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। স্বজনদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে দাফন সম্পন্ন করতে বলা হয়েছে। এ ছাড়া তাঁর স্বজনদের ও তাঁর সংস্পর্শে আসা সবাইকে কোয়ারেন্টিনে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্র জানা যায়, নওগাঁয় এ পর্যন্ত করোনার উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু হয়েছে ২৬ জনের। এর মধ্যে নমুনা পরীক্ষায় পাঁচজনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0