default-image

নীলফামারীতে এক দিনে সর্বোচ্চ ৪৯ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ৪৭৫। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৩৩৭ জন। মারা গেছেন ৮ জন।

বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকার শেরেবাংলা নগরের এনআইএলএমআরসির পিসিআর ল্যাব থেকে ৪৪৭ জনের নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে ওই ৪৯ জনের নমুনা পজিটিভ আসে। জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, নতুন শনাক্ত হওয়া ৪৯ জনের মধ্যে জেলা সদরে ৪২ জন। ওই ৪২ জনের মধ্যে উত্তরা ইপিজেডের দুটি কারখানায় ২৩ জন শ্রমিক ও নীলফামারী পৌরসভার সহকারী প্রকৌশলী দুদু মিয়াসহ ১৯ জন রয়েছেন। এ ছাড়া জলঢাকা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একজন নার্স ও একজন আয়াসহ উপজেলায় চারজন, সৈয়দপুর উপজেলায় দুজন, কিশোরগঞ্জ উপজেলায় একজন রয়েছেন।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, এর আগে ৪ জুলাই এক দিনে সর্বোচ্চ ৪১ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়।

মোট শনাক্ত হওয়ার ৪৭৫ জনের মধ্যে জেলা সদরে ১৯২ জন, ডোমার উপজেলায় ৪৩ জন, ডিমলা উপজেলায় ৫২ জন, জলঢাকা উপজেলায় ৮৩ জন, কিশোরগঞ্জ উপজেলায় ৩৭ জন এবং সৈয়দপুর উপজেলায় ৬৮ জন রয়েছে।

মারা যাওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে কিশোরগঞ্জ উপজেলায় একজন, নীলফামারী জেলা সদরে দুজন, জলঢাকা উপজেলায় এক নারীসহ দুজন এবং সৈয়দপুর উপজেলা তিনজন রয়েছেন।

এ জেলা থেকে মোট নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ৪ হাজার ১৯২টি। ফলাফল পাওয়া গেছে ৪ হাজার ১৫৫টির।

কোভিড-১৯ রোগীর চিকিৎসার জন্য ২৫০ শয্যার নীলফামারী জেনারেল হাসপাতালে ১০৮টিসহ জেলায় মোট আইসোলেশন শয্যা রয়েছে ১৯৮টি।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন