দুর্ঘটনায় নিহত ব্যক্তিরা হলেন অটোরিকশাচালক বেগমগঞ্জের মোয়াজ্জেম হোসেন (২১), যাত্রী হাতিয়ার আদর্শ গ্রামের মোহাম্মদ সোহেল (২৭) ও আমজাদ হোসেন (২১)। এ ছাড়া এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন মোহাম্মদ ফোরকান (২৬) নামের আরেক যাত্রী। তাঁকে স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, শনিবার দিবাগত রাত সাড়ে তিনটার দিকে যাত্রীবাহী একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা ফেনী–নোয়াখালী মহাসড়ক হয়ে ফেনীর দিক থেকে চৌমুহনীর দিকে যাচ্ছিল। পথে লক্ষ্মীনারায়ণপুর নামক স্থানে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি পিকআপ ভ্যানের সঙ্গে অটোরিকশাটির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে অটোরিকশাচালক ও তিন যাত্রী গুরুতর আহত হন।

দুর্ঘটনার পর স্থানীয় লোকজন তাঁদের উদ্ধার করে বেগমগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক চালক মোয়াজ্জেম হোসেন ও যাত্রী সোহেলকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ছাড়া আহত আমজাদ হোসেনকে গুরুতর আহত অবস্থায় নোয়াখালীর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখান থেকে তাঁকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান। একই দুর্ঘটনায় আহত যাত্রী মোহাম্মদ ফোরকানকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

এ বিষয়ে লক্ষ্মীপুরের চন্দ্রগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মৃদুল কান্তি কুরি বলেন, দুর্ঘটনার খবর পেয়ে হাইওয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দুর্ঘটনাকবলিত গাড়িটি উদ্ধার করে। তবে পিকআপ ভ্যানের চালককে আটক করা সম্ভব হয়নি। এই ঘটনায় থানায় একটি মামলা করা হয়েছে। নিহত ব্যক্তিদের লাশ ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করার প্রক্রিয়া চলছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন