বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

জেলা কারাগারের তত্ত্বাবধায়ক ফণী ভূষণ দেবনাথ প্রথম আলোকে বলেন, গত ২৫ সেপ্টেম্বর সেনবাগ থানা–পুলিশ বদু মিয়াকে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠায়। গতকাল দিবাগত রাত ১টায় হঠাৎ তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাৎক্ষণিকভাবে কারারক্ষীদের মাধ্যমে তাঁকে নোয়াখালীর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে নেওয়ার পর রাত ১টা ৩৫ মিনিটে চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

ফণী ভূষণ দেবনাথ জানান, হাজতির মৃত্যুর পর তাঁর পরিবারের কাছে খবর পাঠানো হয়েছে। তাঁরা সকালেই কারাগারে এসে পৌঁছেছেন। নিয়ম অনুযায়ী ময়নাতদন্ত শেষে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

এ ব্যাপারে হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) সৈয়দ মহিউদ্দিন আবদুল আজিম প্রথম আলোকে বলেন, রাত দেড়টায় জেলা কারাগার থেকে এক হাজতিকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। তাৎক্ষণিকভাবে কর্তব্যরত চিকিৎসক পরীক্ষা করে দেখেন হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই ওই ব্যক্তি মারা গেছেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন